আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ স্টেশনের শৌচাগার থেকে জল নিয়ে তা দিয়েই ইডলির চাটনি তৈরি করছেন এক হকার। ট্রেন ধরতে যাওয়ার আগে বা বাড়ি ফেরার পথে সেই চাটনি গরমাগরম ইডলির সঙ্গেই দিব্যি চেটেপুটে খেয়ে নিচ্ছেন রেলযাত্রীরা। ঘটনাটি ঘটেছে মুম্বইয়ের বোরিভালি স্টেশনে। ওই হকার বোরিভালি স্টেশনেই ইডলি বিক্রি করেন। স্টেশনের শৌচাগার থেকে জল নিয়ে তাঁর চাটনি তৈরির পুরো দৃশ্যটা ক্যামেরাবন্দি করে তা সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করেন কোনও এক ব্যক্তি। তারপর গত ৩০ মে ভিডিওটি টুইটারে শেয়ার করেন মিলি শেট্টি নামে এক মহিলা। মুহূর্তে ফুটেজ ভাইরাল হয়। গ্রাহকদের শারীরিক সুরক্ষা নিয়ে এভাবে ছেলেখেলা করার জন্য বিক্রেতার প্রতি নিন্দা এবং ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন বা এফডিএ–র নজরদারিতে গাফিলতি নিয়ে সমালোচনার ঝড় বইতে শুরু করে। ঘটনার পর নড়েচড়ে বসেছে এফডিএ। শনিবার এফডিএ–র মুম্বই শাখার অফিসার শৈলেশ অধভ জানিয়েছেন তাঁরা ভিডিওটি দেখেছেন।

পুরো ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ওই হকার এবং অন্যান্য যে বিক্রেতারা এধরনের কাজ করেন সবার বিরুদ্ধে তদন্ত হবে। শৌচাগারের জল পান বা রান্নার জন্য ব্যবহারযোগ্য নয় বলে জানিয়ে শৈলেশ বলেছেন, ওই হকারের খোঁজ চলছে। তাঁকে ধরতে পারলেই তাঁর ভেন্ডিং লাইসেন্স বাজেয়াপ্ত করা হবে। ওই জলে তৈরি খাবারের নমুনা পরীক্ষায় ধরা পড়লেই তাও বাজেয়াপ্ত করবে এফডিএ। ওই ভিডিওটি কবে, কখন এবং কোথায় তোলা হয়েছে তাও খতিয়ে দেখা হবে। তদন্ত শেষ হলেই উপযুক্ত পদক্ষেপ করবে এফডিএ। জানিয়েছেন শৈলেশ। এদিকে, বোরিভালি স্টেশনে কর্তব্যরত আরপিএফ নিজেদের সাফাইয়ে টুইটারে জানিয়েছে, ওই হকারের স্টলটি স্টেশন চত্বরের বাইরে। তবে অভিযুক্ত হকার যুবকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। কারণ যাত্রীদের স্বাস্থ্য নিয়ে কোনও সমঝোতা করবে না রেল।
ছবি:‌ নবভারত টাইমস্‌, ইন্ডিয়া টুডে         ‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top