আজকালের প্রতিবেদন:‌ চারিদিকে নীল সমুদ্র। সামুদ্রিক প্রাণীদের ছড়াছড়ি। তার মধ্যে স্কুবা ডাইভিং করতে করতে এগোতেই চোখে পড়বে বেশ কয়েকটি স্থাপত্যে। না সমুদ্রে ডুবে যাওয়া কোনও কিছুর অংশ নয়, এগুলি আসলে একটি আর্ট মিউজিয়ামের অংশ। সম্প্রতি আমেরিকার ফ্লোরিডায় সমুদ্রের তলদেশে তৈরি করা হয়েছে আস্ত একটি মিউজিয়াম। বর্তমানে সেটি পর্যটকদের জন্য খুলেও দেওয়া হয়েছে। নাম আন্ডারওয়াটার মিউজিয়াম অব আর্ট বা ইউএমএ। ফ্লোরিডার দক্ষিণ ওয়ালটনের গ্রেটন বিচ স্টেট পার্কের নিকটে অবস্থিত এই মিউজিয়ামটি। এখানে রয়েছে ভিন্স টাটুম নামে এক শিল্পীর তৈরি একটি বিশালাকার কঙ্কাল। এছাড়া রয়েছে অ্যালিসন উইকি–র তৈরি একটি অক্টোপাস। এরা দু’‌জনেই মিউজিয়ামটি তৈরিতে মুখ্য ভূমিকা গ্রহণ করেছেন। ফ্লোরিডায় জলের তলায় অবস্থিত এই মিউজিয়ামে রয়েছে সাতটি অসাধারণ স্থাপত্য। এই মিউজিয়ামে কোনও প্রবেশমূল্য না থাকলেও, যিনি দেখতে যাবেন তাঁকে আগে জলে ডাইভ দিতে হবে।  মিউজিয়াম তৈরি করতে গিয়ে সমুদ্রের যাতে কোনওরকম ক্ষতি না হয়, সেজন্য ইউএমএ কর্তৃপক্ষকে যাবতীয় নির্দেশ দিয়েছিল দক্ষিণ ওয়ালটন আর্টিফিশিয়াল রিফ অ্যাসোসিয়েশন। সংস্থার বোর্ড সভাপতি অ্যান্ডি ম্যাকআলেকজান্ডার বলেন, ‘‌আমরা ওদের সমুদ্রের ওই অংশ সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য দিয়েছিলাম, যাতে সেই অনুযায়ী তাঁরা স্থাপত্যগুলি তৈরি করতে পারে। তারপর আমরাই বাছাই করা স্থাপত্যগুলি সমুদ্রের তলায় বসিয়েছি।’‌ এছাড়া কোনওভাবেই যাতে প্লাস্টিক বা সেই জাতীয় ক্ষতিকর কোনও কিছু দিয়ে স্থাপত্যগুলি তৈরি না হয়, সেদিকেই নজর দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল দক্ষিণ ওয়ালটন আর্টিফিশিয়াল রিফ অ্যাসোসিয়েশন। তবে ম্যাকআলেকজান্ডার প্রাথমিকভাবে এই মিউজিয়ামটির কাজ সফল হবে কি না সেই নিয়ে সন্দিহান ছিলেন, তবে এখন কাজটি সফল হওয়ায় তিনি খুবই অভিভূত।‌

জনপ্রিয়

Back To Top