আজকালের প্রতিবেদন, শিলিগুড়ি, ২৩ জুলাই- সেফ ড্রাইভ, সেভ লাইফ— এই স্লোগানকে সামনে রেখেই এক সপ্তাহব্যাপী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পথ নিরাপত্তা সপ্তাহের সূচনা হল সোমবার। শিলিগুড়িতে আগামী এক সপ্তাহ ধরে মানুষকে সচেতন করার জন্য অভিনব উদ্যোগ নিতে চলেছে মহকুমা প্রশাসন। এদিন মহকুমা শাসক সিরাজ দানেশ্বর জানিয়েছেন, ‘সেফ ড্রাইভ সেভ লাইভ সম্পর্কে ‌মানুষকে সচেতন করতে এবার বিভিন্ন শপিং মল এবং সিনেমা হল, মাল্টিপ্লক্সে রেডিও-‌র মাধ্যমে এই সংক্রান্ত বার্তা তুলে দেওয়া হবে। হেলমেট না পরলে কী ক্ষতি হতে পারে, মত্ত অবস্থায় গাড়ি চালানো কিংবা ট্রাফিক আইন না মানলে কী হতে পারে, সে বিষয়ে বার্তা দেওয়া হবে। আগামী এক সপ্তাহ ধরে এই কর্মসূচি চলবে।’‌ শিলিগুড়িতে মহকুমা প্রশাসনের উদ্যোগে একটি সচেতনতা মিছিল করা হয়। এছাড়া আগামী কয়েকদিনে বসে আঁকো প্রতিযোগিতা, পথনাটিকা–‌সহ নানা অনুষ্ঠান হবে বলেও মহকুমা শাসক জানিয়েছেন। 
কোচবিহার ল্যান্সডাউন হলে সেফ ড্রাইভ, সেভ লাইফ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। ছিলেন কোচবিহারের জেলাশাসক কৌশিক সাহা, কোচবিহার জেলা পুলিস সুপার ভোলানাথ পান্ডে, কোচবিহার জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক সুমিত গাঙ্গুলি–‌সহ প্রশাসনের অন্য কর্তাব্যক্তিরা।
এদিন মালদা কলেজ অডিটরিয়ামে প্রদীপ জ্বালিয়ে পথ নিরাপত্তা সপ্তাহের শুভ সূচনা করেন জেলাশাসক কৌশিক ভট্টাচার্য। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের চেয়ারম্যান আশিস কুণ্ডু বলেন, আমাদের শহরে এখন সবচেয়ে বড় সমস্যা যানজট। মঙ্গলবা‌ড়ি থেকে রবীন্দ্র ভবন, ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের দুধারে জবরদখল করে ব্যবসা চলছে। গাড়ি পার্কিংয়ের জায়গা হয়ে গিয়েছে। সভায় ইংরেজবাজার পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান দুলাল সরকার বলেন, মালদা শহরের মতো এরকম যানজট কোথাও দেখিনি। পুরসভার কাউন্সিলর তথা জেলা শিশু ও নারী কল্যাণ সমিতির চেয়ারপার্সন চৈতালি সরকারও একই অভিযোগ করেন। বলেন, শহরে রথবাড়ি থেকে ফোয়ারা মোড়–‌সহ আশেপাশে যাতায়াত করাটাই এখন বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। দোকানগুলি রাস্তায় উঠে এসেছে। মালদা মার্চেন্ট চেম্বার অব কমার্সের সম্পাদক জয়ন্ত কুণ্ডু বলেন, শহরের এই সমস্যা দূর করতে গেলে আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা উচিত। জেলাশাসক কৌশিক ভট্টাচার্য বলেন, পথ নিরাপত্তা সপ্তাহ এবং সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ সচেতনতা আনার ফলে মালদায় অনেক দুর্ঘটনা কমানো গিয়েছে। ২৩ জুলাই থেকে ১৫ আগস্ট পর্যন্ত চলবে প্রচার ও সচেতনতা অভিযান। রাস্তার ধারে যেসব স্কুল কলেজ আছে সেখানে জেলা প্রশাসন হোডিং লাগাবে। ৭৫টি স্কুলকে বেছে নিয়ে সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ এর সচেতনতায় জোর দেওয়া হচ্ছে।
এই অনুষ্ঠান উপলক্ষ্যে ৬টি পৃথক কর্মসূচি নিল আলিপুরদুয়ার জেলা প্রশাসন। আগামী ৭ দিন জেলা জুড়ে র‌্যাকলেস ড্রাইভিং, মোটরসাইকেলে হেলমেটবিহীন চালকদের বিরুদ্ধে নেওয়া হবে কড়া পদক্ষেপ। ডুয়ার্সকন্যায় বাস, ট্রাক, অ্যাম্বুলেন্স চালকদের নিয়ে হবে সচেতনতা শিবির। বসে আঁকো, কুইজ প্রতিযোগিতাও থাকছে। জেলা প্রশাসনের তরফে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সরকারি সব চার চাকার গাড়িতে সিট বেল্ট বাঁধা বাধ্যতামূলক হচ্ছে সোমবার থেকে।

দার্জিলিঙে ‘‌সেফ ড্রাইভ...’‌–এর প্রচারে পড়ুয়ারা। ছবি: সঞ্জয় বিশ্বাস

জনপ্রিয়

Back To Top