সুনীল চন্দ, রায়গঞ্জ: স্বাধীনতা দিবসে স্কুলে জাতীয় পতাকা তুলেও তা সময়মতো নামানো হয়নি। তার জেরেই জাতীয় পতাকার অবমাননার দায়ে মামলা হল প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে। থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হওয়ায় আপাতত পলাতক অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুল রহমান আলি। স্বাধীনতা দিবসের দিন ঘটনাটি ঘটেছে রায়গঞ্জ শহর লাগোয়া ১২ নম্বর বরুয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের মিজগ্রাম জুনিয়র হাইস্কুলে। 
স্থানীয় সূত্রে খবর, পতাকা উত্তোলনের পর তা নামানোর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল অষ্টম শ্রেণির স্থানীয় এক পড়ুয়াকে। ছাত্রটি তা বেমালুম ভুলে যায়। গ্রামবাসীদের নজরে পড়ে স্কুলে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সকালে উত্তোলিত পতাকা রাতেও উড়ছে পতপত করে। গ্রামবাসীরা টেলিফোনে বিষয়টি জানায় রায়গঞ্জ থানাকে। পুলিস রাতেই স্কুলে গিয়ে সসম্মানে জাতীয় পতাকা নামায়। এই ঘটনায় স্কুলের প্রধানশিক্ষক আব্দুল রহমান আলির বিরুদ্ধে ন্যাশনাল অনার প্রিভেনশন অ্যাক্ট অনুযায়ী মামলা রুজু করা হয়েছে। মামলা রুজুর খবর জেনেই গা ঢাকা দিয়েছেন অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক। স্কুলের সহকারি শিক্ষক প্রসেনজিৎ রায়–‌সহ অন্য শিক্ষকেরা থানায় লিখিতভাবে ভুল স্বীকার করে মুচলেকা দিয়েছেন। স্কুল ছাত্রকে পতাকা নামানোর দায়িত্ব দিয়ে প্রধান শিক্ষক ঠিক করেননি বলে জানিয়ে ক্ষমাও চেয়েছেন সহ শিক্ষকরা।‌

জনপ্রিয়

Back To Top