অভিজিৎ চৌধুরি, মালদা, ১৩ মে- চলা শুরু হয়েছিল এক মাস আগে। আর মাস শেষ হতেই বিকল হয়ে পড়ল মালদা টাউন স্টেশনের চলমান সিঁড়ি। যার ফলে সমস্যায় পড়েছেন যাত্রীরা। বিশেষ করে বয়স্ক মানুষ থেকে প্রতিবন্ধীদের ক্ষেত্রে পায়ে হাঁটা সিঁড়ি ভেঙে মালদা টাউন স্টেশনের ২ থেকে ৫ নম্বর প্লাটফর্ম চলাচল করতে সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। 
সোমবার এ ব্যাপারে মালদার ডিআরএমের সঙ্গে দেখা করেন মালদা দক্ষিণের বিজেপি প্রার্থী শ্রীরূপা মিত্র চৌধুরি। তিনি ডিআরএমের কাছে চলমান সিঁড়ি বিকল থাকার বিষয়টি জানান। স্মারকলিপি দেওয়া হয় পূর্ব রেলের মালদা ডিভিশন কর্তৃপক্ষকে। দ্রুত চলমান সিঁড়ি চালু করার আশ্বাস দিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। গত এপ্রিল মাসেই চালু হয়েছিল মালদা টাউন স্টেশনের এক নম্বর প্ল্যাটফর্মের চলমান সিঁড়িটি। এটি চালু হতেই বয়স্ক থেকে প্রতিবন্ধীদের সুবিধা হয়। হঠাৎ করে চলমান সিঁড়িটি বিকল হয়ে পড়ায় বেশি দূর্ভোগে পড়েছেন সেই বয়স্ক ও প্রতিবন্ধী যাত্রীরাই। 
পূর্ব রেলের মালদা ভিশন সূত্রে জানা গেছে, মালদা টাউন স্টেশনে প্রতিদিনই অন্তত ৫০ জোড়া দূরপাল্লার যাত্রীবাহী ট্রেন যাতায়াত করে। বিশেষ করে এই স্টেশনের এক থেকে তিন নম্বর প্লাটফর্মে দূরপাল্লার যাত্রীবাহী ট্রেনগুলি এসে দাঁড়ায়। প্ল্যাটফর্মে চলাচলের সুবিধার জন্যই চলমান সিঁড়ির ব্যবস্থা করেছে রেল কর্তৃপক্ষ। বিজেপি নেত্রী শ্রীরূপা মিত্র চৌধুরি বলেন, ‘‌মালদা টাউন স্টেশনে চলমান সিঁড়ি বিকাল হয়ে থাকার ব্যাপারে ডিআরএমের সঙ্গে কথা হয়েছে। কালিয়াচকের খালতিপুর স্টেশনে একটি ফুটব্রিজ তৈরির দাবিও জানানো হয়েছে। দ্রুত সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন ডিআরএম।’‌ ইংরেজবাজার পৌরসভার তৃণমূল কাউন্সিলর তথা রেলওয়ে ইউজার্স কনসালটেটিভ কমিটির সহ-সভাপতি নরেন্দ্রনাথ তেওয়ারি জানিয়েছেন, যাত্রীদের সুবিধার জন্য মালদা টাউন স্টেশনে তৈরি চলমান সিঁড়িটি বিকল হয়ে রয়েছে। দ্রুত এটি মেরামত করার দাবি জানিয়েছি।’‌ মালদা ডিআরএম তনু গুপ্তা বলেন, ‘‌প্ল্যাটফর্মের চলমান সিঁড়ি বিকল হওয়ার ব্যাপারে শুনেছি। সেটি মেরামতি করে দ্রুত চালু করার উদ্যোগ নেওয়া হবে।’‌ ‌‌

স্টেশনের থমকে থাকা সিঁড়িতে দাঁড়িয়ে যাত্রী। ছবি:‌ প্রতিবেদক 
 

জনপ্রিয়

Back To Top