‌অভিজিৎ চৌধুরি, মালদা: রবীন্দ্রভারতীর পর এবার মালদার ঐতিহ্যবাহী বার্লো গার্লস স্কুল। বসন্ত উৎসবে স্কুলের পোশাকে স্কুল চত্বরেই চারজন ছাত্রীর সেলফি মোডে হাতে মোবাইল নিয়ে নাচের ভঙ্গিমায় অশ্লীল ও কুরুচিকর গান গাওয়ার ছবি ভাইরাল হয়েছে। নিন্দার ঝড় উঠেছে। কড়া পদক্ষেপ নিচ্ছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। শনিবার স্কুলের শিক্ষিকাদের বৈঠক ডাকা হয়েছে। ওই চার ছাত্রীকে শনাক্ত করেছেন স্কুল কর্তৃপক্ষ। তাদের অভিভাবকদের শনিবার ডাকা হয়েছে। ওই ছাত্রীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি উঠেছে।
ওই চার ছাত্রীর মধ্যে তিনজন একাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগে পাঠরত। আরেকজন বাণিজ্য বিভাগের। ভিডিওতে দেখা গেছে, স্কুল চত্বরে তারস্বরে অশ্লীল ভাষায় গান করছে ওই চার ছাত্রী। 
ছাত্রীরা কীভাবে এত বড় সাহস পেল, ভেবে পাচ্ছেন না স্কুলের শিক্ষিকারা। বার্লো গার্লস হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষিকা দীপশ্রী মজুমদারের সাফ কথা, ‘‌ওই ছাত্রীরা যত বড় ঘরেরই হোক না কেন, এরকম আচরণ কোনওভাবেই বরদাস্ত করব না। ওই ছাত্রীদের অভিভাবকেরা আমাকে অনেক রকম ভাবে ক্ষমা করার অনুরোধ জানিয়েছিলেন। কিন্তু তাঁদের আমি বলে দিয়েছি, এটা আমার এক্তিয়ারের বাইরে চলে গিয়েছে।’‌ অনেকেই বলেছেন, স্কুল চত্বরে গলা ফাটিয়ে যখন এই ধরনের অশ্লীল ভাষা প্রয়োগ করে গান করা হচ্ছিল, তখন কি স্কুলে শিক্ষক–শিক্ষিকারা কেউ ছিলেন না?‌ তখনই তাদের বাধা দেওয়া হল না কেন?‌

এই ছবিই ভাইরাল হয়েছে ফেসবুকে। ছবি:‌ সংগৃহীত

জনপ্রিয়

Back To Top