অভিজিৎ চৌধুরি, মালদা, ১৩ আগস্ট- চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগে রোগী মৃত্যুর ঘটনায় মালদা শহরের একটি নার্সিংহোমে তুমুল বিক্ষোভ দেখালেন মৃতের আত্মীয়রা। সোমবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে শহরের ঝলঝলিয়া এলাকায়। ওই নার্সিংহোমের প্রধান গেট আটকে দফায় দফায় বিক্ষোভ দেখান মৃত রোগীর পরিবারের লোকজন। খবর পেয়ে ওই নার্সিংহোমে যান স্থানীয় তৃণমূল নেতা তথা ইংরেজবাজার পুরসভার কাউন্সিলর নরেন্দ্রনাথ তেওয়ারি।
তাঁর সামনে মৃত রোগীর পরিবারের লোকেরা কান্নায় ভেঙে পড়েন।‌ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় ইংরেজবাজার থানার পুলিস। পুলিসি হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। তবে সাত দিনের মধ্যে ওই নার্সিংহোমের চিকিৎসার পরিকাঠামোর সুষ্ঠু ব্যবস্থা গড়ে তোলা না হলে সেটি বন্ধের হুমকিও দিয়েছেন স্থানীয় কাউন্সিলর। রোগীর আত্মীয়দের তরফ থেকে সংশ্লিষ্ট থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত রোগীর নাম দুলাল কর্মকার (৫৫)। তাঁর বাড়ি দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুর এলাকায়। সাতদিন আগে ওই রোগীর শ্বাসকষ্টের কারণে মালদার এই নার্সিংহোমে ভর্তি হয়েছিলেন। সোমবার ভোরে ওই রোগীর মৃত্যুর কথা জানাজানি হতেই পরিবারের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভ শুরু হয়। এদিন সকালে নার্সিংহোমের গেট বন্ধ করে দেয় বিক্ষোভকারীরা। মারমুখী জনতাকে আটকাতে ঘটনাস্থলে পুলিসকেও হিমশিম খেতে হয়। মৃত রোগীর এক আত্মীয় মিলন কর্মকার জানিয়েছেন, নার্সিংহোমে ভর্তি করার পর ঠিকমতো চিকিৎসা হচ্ছিল না দুলালবাবুর। আমরা ওই রোগীকে সেখান থেকে ছাড়িয়ে অন্যত্র ভর্তি করাতে চেয়েছিলাম। কিন্তু নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ আমাদের কথায় গুরুত্ব দেননি। সোমবার দুলালবাবুর মৃত্যুর কথা জানানোর পর এই বিক্ষোভ শুরু হয়। স্থানীয় কাউন্সিলর নরেন্দ্রনাথ তেওয়ারি জানিয়েছেন, ‘‌এই নার্সিংহোমে চিকিৎসার জন্য ন্যূনতম পরিকাঠামো নেই। রোগীদের জীবন নিয়ে এরকম ভাবে ছিনিমিনি খেলতে দেওয়া যাবে না। তাই ওই নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষকে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে। সাত দিনের মধ্যে যদি এই নার্সিংহোমে সুষ্ঠু চিকিৎসা পরিকাঠামো গড়ে না তোলা হয়, তাহলে আমরাই ওই নার্সিংহোম বন্ধ করে দেব।’‌ যদিও ওই নার্সিংহোমের কর্ণধার ডাঃ এসকে ত্রিপাঠী জানিয়েছেন,  চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ একেবারেই ভিত্তিহীন। ওই রোগীর অবস্থা আগে থেকেই খারাপ ছিল। সব রকমভাবে চেষ্টা করেও তাঁকে বাচাঁনো সম্ভব হয়নি। ইংরেজবাজার থানার আইসি পূর্ণেন্দু কুণ্ডু জানিয়েছেন, রোগী মৃত্যুর অভিযোগের ভিত্তিতে পুরো বিষয়টি নিয়ে তদন্ত হচ্ছে।‌

নার্সিংহোমে বিক্ষোভ সামলাতে মৃতের পরিবার ও স্থানীয় কাউন্সিলরের সঙ্গে কথা বলছেন পুলিসকর্তারা। ছবি:‌ প্রতিবেদক

জনপ্রিয়

Back To Top