সঞ্জয় বিশ্বাস, দার্জিলিং, ৯ সেপ্টেম্বর- বিরাট ব্যবধানে জেতার পরেও বিমল গুরুংয়ের খাসতালুকে ঢুকতে পারলেন না দার্জিলিঙের বিজেপি সাংসদ রাজু বিস্ত। তাকভরে রাজু বিস্তের গাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখালেন একদল পাহাড়বাসী। দেখানো হল কালো পতাকা। উঠল গো–‌‌ব্যাক স্লোগান। টানা প্রায় ৩ ঘণ্টা আটকে থাকতে হল সেখানেই। পরে অবশ্য গন্তব্যে পৌঁছতে পেরেছেন। কিন্তু এমন পরিস্থিতির জন্য সাংসদ বিনয়পন্থী মোর্চা এবং রাজ্যের পুলিশকে কাঠগড়ায় তুলেছেন। পাল্টা রাজু বিস্তকেও কঠোর আক্রমণ করলেন বিনয় তামাং।
দু্’‌দিন ধরে পাহাড় সফরে রয়েছেন বিজেপি সাংসদ রাজু বিস্ত। তিন দিন ধরে নানা কর্মসূচি রয়েছে তাঁর। এদিন তাকভরে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু গন্তব্যের খানিক আগেই এলাকার মানুষ ঘিরে ধরেন। কালো পতাকা নিয়ে বিক্ষোভ করতে করতে বলেন, ‘‌গোর্খাদের কোনও কথা রাখেননি আপনি। অথচ বড় বড় কথা বলছেন। এ সব আর মেনে নেব না। গোর্খাদের নিয়ে আর ভোটের রাজনীতি হতে দেব না।’‌
এদিকে, তিন ঘণ্টা আটকে থাকার পর সাংসদ জানান, এ সব রাজনৈতিক চক্রান্ত। শিলিগুড়ির বিজেপি সভাপতি অভিজিৎ রায়চৌধুরি বলেন, ‘‌বিনয়পন্থীরা মদ খাইয়ে নিজেদের লোক পাঠিয়ে এ সব করেছে। তাঁদের নিজেদের কোনও গ্রহণযোগ্যতা নেই। তাই এ সব করে মাটি ধরে রাখার চেষ্টা করছেন। তাতে কোনও লাভ হবে না।’‌ সাংসদ রাজু বিস্ত অভিযোগ করে বলেন, আমি দার্জিলিং পুলিশ সুপারকে ফোন করলেও দু’‌ঘণ্টায় আসেননি। মনে হচ্ছে সবাই একসঙ্গে আছেন। যদিও মোর্চা নেতা সতীশ পোখরেল বলেন, সাংসদ আগে নিজের প্রতিশ্রুতি পূরণ করুন। তার পর বড় বড় কথা বলবেন। বিনয় তামাং প্রেস বিবৃতি দিয়ে বলেছেন, সাংসদ পাহাড়ে গোর্খাল্যান্ডের আবেগ নিয়ে খেলছেন। মানুষকে হতাশ করেছেন। ফলে এবারে তার প্রতিক্রিয়া শুরু হয়েছে।                                              

 

  কালো পতাকা দেখানো হচ্ছে সাংসদকে। ছবি: প্রতিবেদক

জনপ্রিয়

Back To Top