অম্লানজ্যোতি ঘোষ, আলিপুরদুয়ার, ৪ নভেম্বর- বুনো হাতির তাণ্ডবের জেরে কার্যত রাতের ঘুম উড়ে গেছে পাঁচটি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বাসিন্দাদের। এবার প্রায় ২০ টি হাতির দল রীতিমতো ত্রাস সৃষ্টি করেছে মাদারিহাট ব্লকের খয়েরবাড়ি, রাঙালিবাজনা, মাদারিহাট গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার কয়েক হাজার বাসিন্দার মধ্যে। সোমবার ভোরবেলা সাড়ে পাঁচটার সময় ছেঁক্যামারি গ্রামে ঢুকে পড়ে ২০ টি হাতির দল। দিনের আলোয় প্রায় দেড়ঘন্টা ৭ কিমি এলাকা ঘুরে জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যানে ঢুকে পড়ে। তবে জঙ্গলে ঢোকার আগেই অবশ্য এলাকার ধানের জমির সর্বনাশ করে ফেলে হাতির দলটি। 
জানা গেছে, প্রচুর ধানের জমির দফারফা করেছে দলটি। জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যানের থেকে ইতিমধ্যেই বনকর্মীদের সতর্ক করা হয়েছে। সহ বন্যপ্রাণ সহায়ক মণীশ কুমার যাদব বলেন, ‘‌হাতির দলটির গতিবিধির উপর নজর রাখছি আমরা।’‌ এদিকে স্থানীয়রা জানান, জলদাপাড়া থেকে বা কখনও দলগাঁও, ধুমচি, লঙ্কাপাড়ার দিক থেকে একসঙ্গে ৬০ টি হাতির দল বেরিয়ে আসে। তবে গত তিন চার দিন উৎপাত করছে ২০ টি হাতির দল। জলদাপাড়া থেকে বেরিয়ে জাতীয় সড়ক, রেল লাইন পার করে ভোর চারটের মধ্যে চলে আসছে ছেঁক্যামারি। সেখানে তাড়া খেলে আবার ৭ কিমি নিচে খয়েরবাড়ির দিকে চলে যাচ্ছে। 
স্থানীয়দের কথায়, সিংহভাগ জমিতে ধান পেকে গেছে। কিছু ধান আধ পাকা অবস্থায় ঘরে তুলেছেন কৃষকেরা। দু’‌দিকেই সমান নজর হাতিদের। সমস্যা হল, হাতি ধান ক্ষেতে ঢুকলে যত না জমির ধান খেয়ে ফেলে, তার থেকে বেশি ধানের জমি পা দিয়ে মাড়িয়ে ক্ষতি করে। বাড়িতে কাটা ধান থাকায় হামলা বেড়েছে শেষ ১০ দিনে। ভোর ৪ টে থেকে সকাল ৭ টা পর্যন্ত চূড়ান্ত সতর্ক থাকতে হচ্ছে সবাইকে। সোমবার সকালে বাজি পটকা, ক্যানেস্তারা নিয়ে হাতির দল তাড়ান গ্রামবাসীরা। রাত নামতেই টহলদারি শুরু করছেন বনকর্মীরা।

জনপ্রিয়

Back To Top