গিরিশ মজুমদার, শিলিগুড়ি, ১৮ মার্চ- ‌করোনার জেরে এবার বন্ধ করা হচ্ছে পর্যটন কেন্দ্রগুলো। প্রবেশ বন্ধ হতে চলেছে ভোরের আলো থেকে সুন্দরবনেও। নতুন করে পাহাড়, জঙ্গল কিংবা সমুদ্রের কোনও সরকারি বাংলো বুকিং নেওয়া হবে না। উন্মুক্ত পর্যটনকেন্দ্রগুলিতে ঢোকার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হচ্ছে। ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত পুরনো বুকিংও এই সময়ের জন্য বাতিল করা হচ্ছে। করোনা ঠেকাতে ধাপে ধাপে ঝাপ বন্ধের দিকে এগোচ্ছে রাজ্যের পর্যটন দপ্তর। এই পরিস্থিতিতে ভ্রমণপিপাসুদের সহযোগিতা চেয়েছেন পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব। তিনি বলেন, ‘‌আমরা এই রাজ্য থেকেই পথ দেখাতে চাই। করোনা যে আটকাতে পেরেছি, তা দেশ তথা বিশ্বকে দেখাতে চাই। ইতিমধ্যে মুখ্যমন্ত্রী নেমে পড়েছেন। তিনি একাধিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। করোনা রুখতে তা কার্যকরীও হচ্ছে।’‌
এর আগেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সমস্ত সিনেমা হল, মাল্টিপ্লেক্স, শপিং মল বন্ধ করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ভিড় এড়াতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য। আর যেখানে অধিক লোকজনের সমাগম হয়, সে সব জায়গাতেও নজরদারি চালানো হচ্ছে। বন দপ্তর জঙ্গলের দরজা বন্ধ করেছে। বিভিন্ন ইকোপার্ক, বেঙ্গল সাফারি, চিড়িয়াখানা বন্ধ করা হয়েছে। তবে পর্যটকরা এখনও নিজেদের উদ্যোগে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। তঁাদের সতর্ক করা হয়েছে। তবে যেখানে পর্যটকদের যাতায়াত বেশি, সেই জায়গাগুলোকে প্রাথমিকভাবে নিষিদ্ধ করা হচ্ছে। 
ইতিমধ্যেই সিকিম দেশ–‌বিদেশের পর্যটকদের জন্য দরজা বন্ধ করেছে। এবার রাজ্যের পর্যটনকেন্দ্রের দরজা বন্ধ করা হচ্ছে। গাজলডোবায় ভোরের আলো এখন পর্যন্ত বন্ধ না করলেও ২০ মার্চের পর তা বন্ধ করা হবে। সাময়িকভাবে বন্ধ হবে পাহাড়, ডুয়ার্সের পর্যটনভবনগুলিও। বুধবার পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব বলেন, ‘‌কার শরীরে করোনার ভাইরাস রয়েছে তা জানা নেই। বাইরে থেকে লোকজন আসা আটকাতে হবে। সেইসঙ্গে স্থানীয় স্তরেও ভিড় কমানো দরকার। শিলিগুড়িতে সরকারি প্রেক্ষাগৃহ দীনবন্ধু মঞ্চ বন্ধ করা হয়েছে। মল, বিনোদনকেন্দ্র–‌সহ যেখানে প্রচুর ভিন্ন ধরনের লোকের সমাগম হয় তার উপর নজরদারি রয়েছে সরকারের। সরকার সজাগ। সাধারণ মানুষকেও সজাগ ও সতর্ক করতে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। পর্যটন দপ্তরও এগিয়ে এসেছে। রাজ্যের সমস্ত পর্যটনকেন্দ্র একবারে বন্ধ করা যাবে না। বাংলো–‌সহ পর্যটনকেন্দ্রগুলির ঝাঁপ ধাপে ধাপে বন্ধ করা হবে।’‌

গাজলডোবা ভোরের আলো মেগা পর্যটনকেন্দ্র। ছবি:‌ আজকাল‌

জনপ্রিয়

Back To Top