আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ শাশুড়িকে হত্যার অভিযোগ জামাইয়ের বিরুদ্ধে। মহারাষ্ট্রের ঠানের এই ঘটনায় পুলিস অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে। 
৬৮ বছরের বৃদ্ধা কমলজিৎ কাউর সোমবার সন্ধেয় গিয়েছিলেন জামাইয়ের বাড়ি। তাঁর মেয়ে শারীরিক প্রতিবন্ধী। মেয়ের খোঁজ নিতেই মায়ের যাওয়া। কিন্তু মেয়ের শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে জামাইয়ের অপমান সহ্য করতে হয় কমলজিৎকে। বেশ কিছু বিষয় নিয়ে জামাই অঙ্কুশ ভাট্টি তর্কাতর্কি জুড়ে দেয় শাশুড়ির সঙ্গে। এরপরই দোতলার ফ্ল্যাটের ব্যালকনি থেকে শাশুড়িকে ধাক্কা মেরে নিচে ফেলে দেয় অভিযুক্ত জামাই। প্রত্যক্ষদর্শীরা তৎক্ষণাৎ পুলিসকে খবর দেন। পুলিস দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে অঙ্কুশকে গ্রেপ্তার করে। অবশ্য কমলজিৎকে বাঁচানো যায়নি। ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। বৃদ্ধার মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট এলেই পরবর্তী তদন্ত শুরু করবে পুলিস। অবশ্য অভিযুক্ত জামাইকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। 

জনপ্রিয়

Back To Top