আজকাল ওয়েবডেস্ক: এ যেন কলির রামায়ণ। রামের কাছে পবিত্রতা যাচাই করতে অগ্নিপরীক্ষা দিতে হয়েছিল সীতাকে। মহারাষ্ট্রে ওসমানাবাদের এক মহিলাকে একই কারণে ফুটন্ত তেলে হাত ডোবাতে হল। ন্যক্কারজনক ঘটনাটির ভিডিও করেছে স্বামী নিজেই, যা এই মুহূর্তে প্রবল ভাইরাল। 
সূত্রের খবর, ১১ ফেব্রুয়ারি স্বামীর সঙ্গে ঝগড়ার পর বাড়ি ছেড়ে চলে যান মহিলাটি। ফিরে আসেন চারদিন পর। এই চারদিন ধরে পেশায় ড্রাইভার স্বামীটি গাড়ি নিয়ে গরুখোঁজা খোঁজেন। বাড়ি ফিরে স্ত্রী জানান, পারান্ডার খাচাপুরি চকে বাসের অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে ছিলেন তিনি। এই সময় দুই ব্যক্তি তাঁকে তুলে নিয়ে গিয়ে বন্দি করে রাখেন। এসব কথায় মন গলেনি স্বামী। দুই পুরুষের সঙ্গে চারদিন থাকায় পবিত্রতার পরীক্ষা দিতে স্ত্রীকে ফুটন্ত তেলে হাত ডোবাতে বাধ্য করল সে। 
ফুটন্ত তেলে একটি পাঁচ টাকার কয়েন ফেলে তা তুলতে নির্দেশ দেয় স্বামীটি। ভিডিওতে মারাঠি ভাষায় বলতে শোনা যায়, ‘আমার স্ত্রী বলছে, ওকে দুই জন্য বন্দি করে রেখেছিল, কিন্তু কেউ কিছু করেনি। আমি জানতে চাই ও সত্যি বলছে কিনা, তাই এটা করলাম।’ 


স্বামীর বক্তব্য, রীতি অনুযায়ী, যদি কেউ মিথ্যে বলে তবে তার হাত পুড়বে এবং তাকে তেল থেকে নির্গত আগুন খেয়ে নিতে হবে। ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ায় বিপদে পড়েছে ‘বীরপুঙ্গব’ স্বামীটি। মহারাষ্ট্রের গৃহমন্ত্রী অনিল দেশমুখকে কড়া পদক্ষেপ নিতে বলেছেন মহারাষ্ট্র বিধানসভার চেয়ারম্যান নীলম গোরে। নীলম বলেছেন, স্ত্রীকে ‘অগ্নিপরীক্ষা’ দেওয়ার ঘটনা প্রায়ই ঘটছে।      
 
 

জনপ্রিয়

Back To Top