আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ হায়দরাবাদের গণধর্ষণের ঘটনায় হইচই পড়ে গিয়েছে গোটা দেশে। ধর্ষকদের ফাঁসির দাবি জানাচ্ছে দেশের প্রত্যেকটি মানুষ। এই পরিস্থিতিতে দিল্লিতে সংসদের সামনে একাই প্রতিবাদ জানিয়ে ধর্ণা দিলেন এক তরুণী। তবে শেষপর্যন্ত ওই তরুণীকেই কি না আটক করল দিল্লি পুলিশ। এমনকি পুলিশের বিরুদ্ধে হেনস্থার অভিযোগও এনেছেন অনু নামে ওই তরুণী।
‘‌কেন?‌ নিজের ভারতেই আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগব’। একটি প্ল্যাকার্ডে এই কথা লিখে দিল্লির লুটয়েনস এলাকায় প্রতিবাদে বসেছিলেন ওই যুবতী। সঙ্গে কেউ ছিল না। তবে একাই ধর্ষণের এই নৃশংস ঘটনার প্রতিবাদ করতে থাকেন। পাশাপাশি হায়দরাবাদ পুলিশ সময়মতো কেন কোনও ব্যবস্থা নেয়নি, সেই প্রশ্নেও বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। তবে কোনো স্লোগান নয়, শান্তিপূর্ণভাবেই বিক্ষোভ প্রদর্শন করছিলেন তিনি। এর মধ্যে কেঁদেও ফেলেন। এরপর প্রায় কয়েকঘণ্টা প্রতিবাদ করার পর সেখানে উপস্থিত হয় দিল্লি পুলিশ। তারা মেয়েটিকে প্রতিবাদ বন্ধ করে সেখান থেকে সরে যেতে বলে। এরপরই ওই যুবতী যেতে না চাওয়ায় তাঁকে যন্তরমন্তরে চলে যেতে বলা হয়।
এরপরও মেয়েটি রাজি না হওয়ায়, একটি পুলিশের গাড়িতে মেয়েটিকে জোর করে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। সেসময় তাঁকে কাঁদতেও দেখা যায়। এরপর একটি পুলিশ স্টেশনে নিয়ে গিয়ে আটকে রাখা হয় ওই যুবতীকে। তবে তাঁর বক্তব্য, শুধু আটকে রাখাই নয়, পুলিশ তাঁকে হেনস্থাও করেছে। এমনকী মারধরও করেছে। এদিকে, পুলিশ আধিকারিকরা জানিয়েছেন, যুবতীকে আটকে রাখা হয়নি। তাঁকে চলে যেতে বলা হলেও তিনি আসলে যেতে চাননি। এছাড়া তাঁকে কোনওভাবে হেনস্থাও করা হয়নি।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top