পিটিআই, দিল্লি, ৬ জুন- বিশ্বের নানা দেশকে চ্যালেঞ্জের মুখে ছুড়ে দিয়েছে করোনা ভাইরাস। তবে ভারতের ক্ষেত্রে সুযোগ নিয়ে এসেছে। মহামারীর এই সময়ে দেশের সরকারি স্বাস্থ্য প্রকল্প আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প গতি পাবে। মনে করছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (‌‌হু)‌–‌র ডিরেক্টর টেড্রস অ্যাডানম গেব্রেসাস। 
গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ৯,৮৮৭, যা এ যাবৎ সর্বোচ্চ। একদিনে ২৯৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২,৩৬,৬৫৭। মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬,৬৪২। বর্তমানে প্রতি তিন সপ্তাহে দ্বিগুণ হারে ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। এরই মধ্যে কিঞ্চিৎ আশার কথা শুনিয়েছেন হু–এর জরুরি অবস্থা বিশেষজ্ঞ মাইক রায়ান। জানিয়েছেন, ভারত তথা সমগ্র দক্ষিণ এশিয়ায় এখনও সংক্রমণের বিস্ফোরণ ঘটেনি। রায়ান বলেন, ‘‌দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলিতে এখনও করোনা সংক্রমণের বিস্ফোরণ ঘটেনি। সেটা কেবল ভারত নয়, বাংলাদেশ, পাকিস্তান–সহ অন্যান্য ঘনবসতিপূর্ণ দেশগুলিতেও তা–ই। সেখানে সংক্রমণের হার তুলনামূলকভাবে এখনও কম।’‌ 
তাঁর বক্তব্য ভারত, পাকিস্তান আর বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ধীরে ধীরে বাড়ছে। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে আক্রান্তের সংখ্যা যেভাবে গুণিতকের হারে বেড়েছে, ভারতে সেই পরিস্থিতি এখনও নেই। একই সঙ্গে তাঁর সতর্কবাণী, ‘‌তবু সংক্রমণের বিস্ফোরণের শঙ্কাকে একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যায় না।’‌ ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা শনিবার ২ লক্ষ ৩৬ হাজারের গণ্ডি ছাড়ানোর প্রসঙ্গে হু–‌র প্রধান বিজ্ঞানী সৌম্য স্বামীনাথন বলেছেন, ‘‌২ লক্ষ সংখ্যাটা বড় হলেও ভারতের আয়তন এবং জনসংখ্যার তুলনায় এখনও পরিমিত।’‌‌‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top