আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ টিকাকরণ প্রক্রিয়ার শুরু থেকেই কোভ্যাক্সিনকে নিয়ে বিতর্ক চলছে। এই টিকা কতটা নিরাপদ–তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। আবার ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা নিয়েও প্রশ্ন অনেকের। বিতর্কের মাঝেই এবার ভ্যাকসিন নির্মাতা ভারত বায়োটেক জানিয়ে দিল, সকলের জন্য নয় কোভ্যাক্সিন। কারা কারা এই টিকা নিতে পারবেন, কারা পারবেন না, তা স্পষ্ট করে দিয়েছে হায়দরাবাদের এই সংস্থা। সোমবার রাতে ভারত বায়োটেকের তরফে একটি ফ্যাক্ট শিট প্রকাশ করা হয়েছে। যেখানে কোভ্যাক্সিন সংক্রান্ত একাধিক তথ্য প্রকাশ্যে আনা হয়েছে। কারা এই ভ্যাকসিন নিতে পারবেন না তাও স্পষ্ট করে দিয়েছে ভারত বায়োটেক। যেখানে বলা হয়েছে, 
*‌ অ্যালার্জির ধাত থাকলে কোনওভাবেই নেওয়া যাবে না কোভ্যাক্সিন।
*‌ জ্বর থাকলে এই টিকা নেওয়া চলবে না।
*‌ ব্লাড ডিসঅর্ডার থাকলে। অথবা নিয়মিত রক্ত পাতলা করার ওষুধ খাচ্ছেন যাঁরা, তাঁরাও এই ভ্যাকসিন নিতে পারবেন না।
*‌ দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম হলে, অথবা সেই ক্ষমতাকে প্রভাবিত করে এমন কোনও ওষুধ সেবন করলে এই টিকা না নেওয়াই ভাল।
*‌ অন্তঃসত্ত্বারা এই টিকা নিতে পারবেন না।
*‌ সন্তানকে স্তন্যপান করাচ্ছেন এমন মহিলারা টিকা নেবেন না।
*‌ অন্য কোনও কোভিড ভ্যাকসিন নিয়েছেন এমন কেউ কোভ্যাক্সিন নিতে পারবেন না।
*‌ জটিল অসুখ থাকলে নেওয়া যাবে না কোভ্যাক্সিন।
তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল শেষের আগেই ছাড়পত্র পেয়েছে কোভ্যাক্সিন। যা নিয়ে বিশেষজ্ঞ থেকে রাজনীতিবিদ, সকলেই একযোগে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন। ১৬ জানুয়ারি দেশজুড়ে কোভিড টিকাকরণ প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। কিন্তু অনেকেই কোভ্যাক্সিন নিতে চাইছেন না। এবার টিকা প্রস্তুতকারী সংস্থার তরফে জানিয়ে দেওয়া হল কারা এই টিকা নিতে পারবেন, আর কাদের জন্য বিপদ ডেকে আনবে এই ভ্যাকসিন। 

জনপ্রিয়

Back To Top