আজকাল ওয়েবডেস্ক: ভারত বায়োটেক সংস্থার প্রতিষেধক কোভ্যাক্সিন নিতে চাইছেন না দিল্লির মনোহর লোহিয়া হাসপাতালের চিকিৎসকরা। নামী হাসপাতালটির চিকিৎসকরা অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রোজেনেকের কোভিশিল্ডকেই অগ্রাধিকার দিচ্ছেন। কারণ ভারতীয় সংস্থার প্রতিষেধকের এখনও ট্রায়াল প্রক্রিয়া শেষ হয়নি। 
এক চিঠিতে হাসপাতালের সুপারের কাছে চিকিৎসক সংগঠন জানিয়ে দিয়েছে, কোভ্যাক্সিন টিকা দেওয়া হলে বেশিরভাগই তা নেবেন না। তাই তাঁদের আর্জি, ‘আমাদের কোভিশিল্ড টিকা দিন।’ রেসিডেন্ট ডক্টর্স অ্যাসোসিয়েশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্মাল্য মহাপাত্র বলছেন, তাঁদের মধ্যে অনেকেই এই দেশব্যাপী টিকাকরণ কর্মসূচিতে নাম লেখাননি। তাঁর কথায়, ‘কোভাক্সিন নিয়ে আমরা আতঙ্কিত কারণ ট্রায়াল এখনও শেষ হয়নি। আমরা অগ্রাধিকার দেব কোভিশিল্ডকেই।’  
কেন্দ্র সরকারের তরফে আগেই জানানো হয়েছে, প্রতিষেধক নেওয়ার ক্ষেত্রে কোনও পছন্দ-অপছন্দ গ্রাহ্য হবে না। শুধু দিল্লিতেই ছ’টি কেন্দ্রীয় চিকিৎসা কেন্দ্রে কোভ্যাক্সিন দেওয়া হচ্ছে, যার মধ্যে পড়ে মনোহর লোহিয়া হাসপাতাল। রাজ্যচালিত ৭৫টি হাসপাতালে দেওয়া হচ্ছে কোভিশিল্ড। লোহিয়া হাসপাতালের চিকিৎসকদের এই দাবিকে উড়িয়ে দিচ্ছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন। তিনি বলেছেন, গুজবে কান দেওয়া উচিত না। এই প্রতিষেধক (কোভ্যাক্সিন) বানাতে প্রচুর খাটতে হয়েছে। এই মুহূর্তে পছন্দ অপছন্দ গ্রাহ্যই হবে না। নামী হাসপাতালের চিকিৎসকরাই যদি দেশীয় প্রতিষেধক নিয়ে উদ্বিগ্ন বোধ করেন তাহলে সাধারণ মানুষের কী হবে, সেটাই প্রশ্ন।    
 

জনপ্রিয়

Back To Top