আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ মেয়ের বিয়ের জন্যে রাজস্থানের এক ব্যক্তি যা করলেন, তা দেখে অবাক নেটদুনিয়া। মেয়ের বিয়েতে সব বাবাই কিছু না কিছু চমক দিতে চান। তিনিও তাই চেয়েছিলেন। নিজের বাড়ি ছেড়ে শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার দু:‌খটা যাতে কিছুটা হলেও কম করা যায়, সেজন্যে অদ্ভুত কাজ করলেন তিনি। হেলিকপ্টারে মেয়ের বিদায় করেন। সেই কাণ্ড তাকিয়ে দেখলেন গ্রামের মানুষ। 
রাজস্থানের ঝুনঝুনু শহরের কাছে অজিতপুরা গ্রামের বাসিন্দা মহেন্দ্র সোলাক। বেশ কিছু দিন ধরেই মেয়ের বিয়ের কথাবার্তা চলছিল। বিয়ে ঠিকও হয়। তখনই তিনি তাঁর পরিকল্পনার কথা পরিবারকে জানান। পরিকল্পনা আগেই করে রেখেছিলেন তিনি। সব শোনার পর পরিবারের লোকেরাও তার এই পরিকল্পনায় সায় দেন। বৃহস্পতিবার বিদায় ছিল মেয়ে রিনার। গ্রামবাসী, নিমন্ত্রিতরা দেখলেন, গ্রামে এসে নামল একটি হেলিকপ্টার। ততক্ষণে অবশ্য সবাই জেনে গিয়েছেন রিনার বিদায় পালকি বা কোনও গাড়িতে নয়। হবে এই হেলিকপ্টারে। সেই মতো স্বামীকে নিয়ে রিনা বাপের বাড়ির সবার কাছ থেকে বিদায় নিয়ে উঠে পড়েন হেলিকপ্টারে। আকাশ পথে উড়ে যান শ্বশুরবাড়ির দিকে। রিনার বিয়ের বিদায়ের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট হতেই ভাইরাল হয়ে যায়। মেয়ের বাবার এই কাণ্ডের প্রশংসাও করেছেন নেটিজেনরা।
 

জনপ্রিয়

Back To Top