আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ফের একবার প্রবল তুষারপাতের সাক্ষী থাকল উত্তরাখণ্ড। করোনা আতঙ্কে সারা দেশজুড়ে লকডাউনের ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী। তুষারপাতের জেরে পুরু বরফের স্তর জমে যাওয়ায় একপ্রকার গৃহবন্দি উত্তরাখণ্ডের চামোলি জেলার বাসিন্দারা। যেদিকেই তাকানো হচ্ছে সেদিকেই বরফের স্তর দেখা যাচ্ছে। সেইসঙ্গে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা বিঘ্নিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার সকালে চামোলি জেলার বিভিন্ন এলাকায় ভারী বরফ পড়তে শুরু করে। বদ্রীনাথ মন্দির ও চামোলির স্থানীয় বাড়িগুলি পুরু বরফের চাদরে ঢেকে গিয়েছে। একইসঙ্গে ঠাণ্ডা পরিবেশ তৈরি হয়েছে। অনেকেই বলছেন এটা করোনাভাইরাসের অনুকূল পরিবেশ। আতঙ্কও বাড়তে শুরু করেছে। বৃহস্পতিবার উত্তরাখণ্ডের পশ্চিম হিমালয় এলাকা বজ্রবিদ্যুত্‍–সহ ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। ঝোড়ো বাতাস ও ভারী তুষারপাতেরও সম্ভাবনা রয়েছে।
উল্লেখ্য, বদ্রীনাথ মন্দির আগামী ৩০ মার্চ সাধারণের জন্য খুলে দেওয়ার কথা। নভেম্বর মাসে মন্দিরের দরজা বন্ধ করে দেওয়া হয়। গত সপ্তাহে দেরাদুন, হরিদ্বার এবং হৃষিকেশের বিভিন্ন এলাকায় প্রবল বর্ষণের সঙ্গে সঙ্গে তুষারপাতও হয়। কেদারনাথ ও বদ্রীনাথে রেকর্ড তুষারপাত হয়েছে বলে খবর।

জনপ্রিয়

Back To Top