আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ করোনা মোকাবিলায় নতুন পন্থা। গ্রামের প্রধানদের কাজে লাগিয়ে তথ্য সংগ্রহ। বাইরের দেশ থেকে কে কবে এরাজ্যে প্রবেশ করেছে তার সম্পূর্ণ তথ্যাবলী তৈরির নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর। 
জোর তল্লাশি চলছে যোগী রাজ্যে। করোনা সংক্রমণ রোখার জন্য বিদেশ থেকে আগত ব্যক্তিদের মেডিক্যাল পরীক্ষা হওয়া দরকার। কিন্তু তার জন্য চাই সঠিক তথ্য। গত দু’‌সপ্তাহে ভিনদেশ থেকে কেউ রাজ্যে ঢুকেছে কিনা তা সন্ধান করার জন্য সুবিধাজনক পন্থা বের করেছে উত্তরপ্রদেশ সরকার। গ্রামের প্রধানদের নিযুক্ত করা হয়েছে তথ্য সংগ্রহ করার কাজে। অতিরিক্ত মুখ্য সচিব অবনীশ কুমার আওয়াস্তি জানালেন, ‘‌প্রায় ১০ হাজার গ্রামপ্রধানকে যোগাযোগ করা হয়েছিল মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তর থেকে। তাঁদের বলা হয়েছে, তাঁরা যেন চিরুণি তল্লাশি চালিয়ে তথ্য সংগ্রহ করেন। গত দু’‌সপ্তাহে এরাজ্যে বাইরে থেকে যাঁরা এসেছেন, তাঁদের খোঁজ করতে হবে।’‌ এছাড়া তিনি একটি হেল্পলাইন নম্বর (‌১০৭৬)‌ দিয়ে বলেছে, যদি কেউ স্বাস্থ্য সংক্রান্ত কোনও অভিযোগ জানাতে চান, তিনি যেন এই নম্বরে যোগাযোগ করেন। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে সেদেশে একটি জেলা কন্ট্রোল রুম গঠন করা হচ্ছে। এছাড়া লকডাউনের মধ্যেই রাজ্যের বিভিন্ন অংশে সাফাইকাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছেন যোগী আদিত্যনাথ। ইতিমধ্যেই একটি ত্রাণ তহবিল তৈরি করা হয়েছে। রাজ্যের মন্ত্রীরা তাতে সাহায্য করবেন বলে জানালেন অতিরিক্ত মুখ্য সচিব। স্বাস্থ্য দপ্তরের মুখ্য সচীব অমিত মোহনের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত সেরাজ্যে ৩৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ৬ হাজারটি আইসোলেশন বেডের ব্যবস্থা করা হয়েছে।   

জনপ্রিয়

Back To Top