আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ খুনের চেষ্টার অভিযোগে গ্রেপ্তার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও বিজেপি নেতার ছেলে। মঙ্গলবার গ্রেপ্তার করা হয়েছে মধ্যপ্রদেশের বিজেপি নেতা ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রহ্লাদ সিং প্যাটেলের ছেলে প্রবাল প্যাটেলকে (‌২২)‌। মধ্যপ্রদেশের গোটেগাঁও নরসিংহপুর জেলায় ঘটনাটি ঘটে। ঘটনায় অভিযুক্ত মন্ত্রীর এক ভাইপো পলাতক। যে আবার বিজেপি বিধায়ক জালাম সিং প্যাটেলের ছেলে। এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত সাতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আহত হয়েছেন চারজন। 
ঘটনায় গুরুতর আহত হোমগার্ড ঈশ্বর রাই (‌৫০)‌ হাসপাতালে ভর্তি আছেন। সোমবার রাতে দুই ব্যক্তির সঙ্গে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলের বচসা হয়। বচসা চলাকালীনই মন্ত্রীর ছেলে, ভাইপো সহ বাকি অভিযুক্তরা দুই ব্যক্তিকে মারধর শুরু করে। তারপর ঈশ্বরের ঘরে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে গিয়ে ওই দুই ব্যক্তি ছাড়াও ঈশ্বর ও তাঁর ছেলেকেও মারধর করা হয়। জানা গেছে, ঈশ্বরের ছেলে আগে প্রবাল ও মন্ত্রীর ভাইপো মনুর পরিচিত ছিল। কিন্তু সে সম্পর্কে এখন তিক্ততা। অভিযোগ, ঈশ্বরের ছেলেকে লোহার রড ও বেসবল ব্যাট দিয়ে মারধর করে অভিযুক্তরা। ছেলেকে বাঁচাতে ছুটে আসেন ঈশ্বর। তাঁকেও মারা হয়। এমনকি অভিযুক্তদের একজন গুলি চালায় বলেও অভিযোগ। 
পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। মনুর খোঁজে তল্লাশি চলছে। মনুর বাবা একসময় শিবরাজ সিং চৌহান সরকারের মন্ত্রী ছিলেন। যদিও গোটা ঘটনা অস্বীকার করেছেন বিধায়ক জালাম সিং প্যাটেল। তিনি বলেছেন, ‘‌ঘটনার সময় মনু জবলপুরে ছিল। আর প্রবাল ঘটনার পর সেখানে যায়।’‌ কংগ্রেসের মুখপাত্র নরেন্দ্র সিং সালুজা বলেছেন, ‘‌গোটা ঘটনার পিছনে রয়েছে মন্ত্রীর ছেলে, ভাইপো। বেআইনি কাজকর্মের সঙ্গে তারা যুক্ত। তা নিয়েই গন্ডগোল হয়েছে।’‌  
 

জনপ্রিয়

Back To Top