আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিয়ে করতে রাজি হয়নি নাবালিকা। রাগে প্রতিশোধ নিতে চেয়েছিল অভিযুক্ত যুবক। ফাঁকা বাড়িতে ঢুকে ১৭ বছরের তরুণীর গলায় ছুরি চালিয়ে দেয় অভিযুক্ত। হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে নাবালিকা। 
ঘটনাটি ঘটে গত বুধবার কর্নাটকের টি দশরাহাল্লি এলাকায়। পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছেন নাবালিকার মা। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। জানা গেছে, অভিযুক্ত জনার্দন দীর্ঘদিন ধরে বিরক্ত করছিল নাবালিকাকে। বিয়ে করতে চেয়েছিল নাবালিকাকে। প্রথমে নাবালিকার মা–বাবার কাছে বিয়ের আর্জি নিয়ে আসে জনার্দন। কিন্তু এই প্রস্তাবে রাজি হয়নি নাবালিকার মা–বাবা। এরপর সরাসরি মেয়েটিকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। তাতেও লাভ হয়নি। তরুণী ‘‌না’‌ বলে দেয়। এরপরই রাগে ফুঁসতে থাকে জনার্দন। গত বুধবার নাবালিকা যখন বাড়িতে একা, তখনই সেখানে হাজির হয় জনার্দন। প্রথমে নাবালিকার সঙ্গে তর্ক হয়। তারপর ছুরি বের করে নাবালিকার গলায় চালিয়ে দেয় অভিযুক্ত। তারপর পালিয়ে যায়। পুলিশের কাছে নাবালিকার মা জানিয়েছেন, গত ৭ মাস ধরে জনার্দন বিরক্ত করছিল তাঁর মেয়েকে। জনার্দনের হাত থেকে বাঁচতে একাধিকবার বাড়ি বদল করেছিল নাবালিকার পরিবার। নাবালিকা আগে যেখানে থাকত, সেখানেই বাড়ি জনার্দনের। ২৫ বছরের অভিযুক্ত গাড়ি চালাত। কিন্তু সেই চাকরি ছেড়ে দেয় জনার্দন। সারাক্ষণ মদ্যপ অবস্থায় থাকত। স্কুল যাওয়া–আসার পথে নাবালিকাকে বিরক্ত করত অভিযুক্ত। 
পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার সময় আচমকা নাবালিকার এক আত্মীয় চলে আসাতেই জনার্দন পালিয়ে যায়। যদিও অভিযোগের ভিত্তিতে বেঙ্গালুরু পুলিশ জনার্দনকে গ্রেপ্তার করেছে। 

জনপ্রিয়

Back To Top