আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌লাদাখকে চীনের অংশ হিসেবে কেন দেখানো হয়েছে, টুইটারের ব্যাখ্যায় সন্তুষ্ট নয় যৌথ সংসদীয় কমিটি। ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষা বিল সংক্রান্ত ইস্যুতে এদিন টুইটার ইন্ডিয়ার আধিকারিকদের ডেকে পাঠিয়েছিল বিজেপি সাংসদ মিনাক্ষি লেখির নেতৃত্বাধীন যৌথ সংসদীয় কমিটি। লাদাখের লেহ্‌ অঞ্চলকে কেন চীনের অংশ হিসেবে দেখানো হয়েছে, সেই সংক্রান্ত বিষয়ে সওয়াল–জবাব পর্বে মাইক্রোব্লগিং সাইট যে ব্যাখ্যা দিয়েছে, তা ‘‌যথেষ্ট’‌ নয়, পাশাপাশি এই ধরনের ভুল ফৌজদারি অপরাধ হিসেবে গণ্য করা হবে, যার জেরে সাত বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে। জানান কমিটির চেয়ারম্যান মিনাক্ষি লেখি। 

 

টুইটার আধিকারিকরা কমিটিকে জানিয়েছেন, লাদাখ ইস্যু ভারতের কাছে অত্যন্ত স্পর্শকাতর বিষয়। মিনাক্ষি লেখি বলেন, এটা শুধু সংবেদনশীলতার প্রশ্ন না, ভারতের সার্বভৌমত্ব এবং অখণ্ডতার বিরোধী। এক টুইটার আধিকারিক বৈঠকে বলেন, ‘‌টুইটারের তরফেই যে ভুল হয়েছে, তা সঙ্গে সঙ্গে শুধরে নেওয়া হয়েছে। আমরা উন্মুক্ত থেকে স্বচ্ছভাবে কাজ করতে পছন্দ করি। আগামী দিনে এই সংক্রান্ত যে কোনও বিষয়ে আমরা সরকারের সঙ্গে সহযোগিতা করব, যোগাযোগ রাখব।’‌ সরকারি সূত্রে খবর, টুইটার কর্তৃপক্ষকে পরিষ্কার জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ভারতের সার্বভৌমত্ব এবং অখণ্ডতার অসম্মান করলে, তা মেনে নেওয়া হবে না।

জনপ্রিয়

Back To Top