‌‌আজকালের প্রতিবেদন 
দিল্লির সরকারি স্কুলে ‘‌হ্যাপিনেস ক্লাস’ দেখবেন মার্কিন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। কিন্তু সেই অনুষ্ঠানে কেন্দ্রের তরফে আমন্ত্রণই জানানো হয়নি দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, উপমুখ্যমন্ত্রী মণীশ শিশোদিয়াকে। আম আদমি পার্টি (‌আপ)‌–র সূত্রে এই খবর পাওয়া গেছে। দিল্লির সরকারি স্কুলগুলোতে এই ‘‌হ্যাপিনেস ক্লাস’‌ কিন্তু চালু করেছেন শিশোদিয়াই। মেলানিয়ার কর্মসূচিতে অতিথি তালিকায় নাম না থাকা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে আপ। পাশাপাশি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের রাষ্ট্রপতি ভবনের অনুষ্ঠানে বিরোধীদের আমন্ত্রণ না জানানোয় ক্ষোভপ্রকাশ করে টুইট করেছেন কংগ্রেস নেতা শশী থারুর। তিনি বলেছেন, এই ঘটনা ভারতের ভাবমূর্তি দুর্বল করবে। পরে অবশ্য জানা যায়, ওই অনুষ্ঠানে কংগ্রেসের লোকসভার নেতা অধীর চৌধুরিকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।
এদিকে, শনিবার তাঁর সংসদীয় ক্ষেত্র পাটপড়গঞ্জের একটি সরকারি স্কুলের হ্যাপিনেস ক্লাসে যোগ দেওয়ার পর মণীশ শিশোদিয়া সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, মার্কিন দূতাবাস থেকে ফার্স্ট লেডির সফরের ব্যাপারে তাঁদের কাছে অনুরোধ এসেছে। তবে, কোন স্কুলে অনুষ্ঠান হবে সে সম্পর্কে বিশদে কিছু জানানো হবে না বলে এদিন স্পষ্ট করে দিয়েছেন দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী।
কেজরিওয়াল মন্ত্রিসভার সদস্য গোপাল রায় বলেছেন, তাঁদের কাছে এখনও পর্যন্ত সরকারিভাবে আমন্ত্রণ আসার কোনও তথ্য নেই। আপ–এর জাতীয় কর্মসমিতির সদস্য প্রীতি শর্মা মেনন টুইটে লিখেছেন, ‘‌নরেন্দ্র মোদির মতো ক্ষুদ্রমনা আর হয় না। আপনি অরবিন্দ কেজরিওয়াল, মণীশ শিশোদিয়াকে আমন্ত্রণ না জানাতে পারেন। কিন্তু, তাঁদের সপক্ষে কথা বলবে তাঁদের কাজ!‌’‌ ২৫ ফেব্রুয়ারি দিল্লিতে নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে যখন ট্রাম্পের বৈঠক চলবে, তখন দক্ষিণ দিল্লির একটি সরকারি স্কুলে হ্যাপিনেস ক্লাসে যাবেন মেলানিয়া ট্রাম্প। ৪৫ মিনিট সেখানে থাকার কথা মার্কিন ফার্স্ট লেডির। স্কুলের ছাত্র–ছাত্রীদের সঙ্গেও কথা বলবেন মেলানিয়া। দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মণীশ শিশোদিয়া দুই বছর আগে রাজধানীর সরকারি স্কুলগুলিতে ‘‌হ্যাপিনেস ক্লাস’‌ শুরু করেছিলেন। পড়ুয়াদের ওপর থেকে চাপ কমাতেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। মেলানিয়া এরকমই একটি ‘‌হ্যাপিনেস ক্লাস’–‌এ অংশ নেবেন। 
এদিকে কংগ্রেস নেতা শশী থারুর বলেছেন, ‘‌সঙ্কীর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে সরকারি কর্মসূচিতে বাছাই করে আমন্ত্রণ পাঠানো শুরু করেছে মোদি সরকার, যা গণতন্ত্রের পক্ষে ভাল নয়।’‌ বিরোধীদের অভিযোগের জবাবে বিজেপি মুখপাত্র সম্বিত পাত্র বলেছেন, ‘‌কিছু কিছু বিষয়ে এই ধরনের নিম্নমানের রাজনীতি করা উচিত নয়। এভাবে পরস্পরের নামে কুকথা বললে দেশের বদনাম হবে। এছাড়াও আমেরিকা কাকে আমন্ত্রণ জানাবে, আর কাকে নয় সে বিষয়ে ভারত সরকারের কোনও ভূমিকা নেই।’‌‌‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top