আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‘‌সাধারণ হামলার চেয়ে বড় কিছু!‌’
২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯। হোয়াটস্‌অ্যাপ চ্যাটে বার্কের প্রাক্তন সিইও পার্থ দাশগুপ্তকে এ কথাই লিখেছিলেন রিপাবলিক টিভির প্রধান সম্পাদক অর্ণব গোস্বামী। তিন দিন পর অর্থাৎ ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯‌। পাকিস্তানের বালাকোটে বড়সড় অভিযান চালাল ভারতীয় বায়ুসেনা। পার্থ এবং অর্ণবের কথোপকথনের স্ক্রিনশট সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই এখন প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, এত বড় সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের বিষয়ে যেখানে কেউই জানতেন না, অর্ণব গোস্বামী জানলেন কী করে?‌ 
গত ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় জঙ্গি হানায় ৪০ জন জওয়ান শহিদ হয়েছিলেন। সেই ঘটনার প্রত্যাঘাত হিসেবেই ২৬ ফেব্রুয়ারি বালাকোটে ঢুকে বিমান হানা চালায় ভারতীয় বায়ুসেনা। সেনা সূত্রে খবর পাওয়া যায়, প্রায় ১০০০ কেজি বোমা ফেলা হয় ওই এলাকায়। ‘স্ট্রিনজার এশিয়া’ নামে একটি ম্যাগাজিনের প্রতিবেদনে সাংবাদিক ফ্রান্সেসকা মরিনো দাবি করেন, ওই হামলাতেই ১৩০ থেকে ১৭০ জন জঙ্গি নিহত হয়েছে। 
শুক্রবার অর্ণব গোস্বামী এবং রেটিং সংস্থা বার্কের প্রাক্তন সিইও পার্থ দাশগুপ্তের মধ্যে হোয়াসট্‌অ্যাপে কথোপকথনের স্ট্রিনশট সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই একটা চাপা হইচই শুরু হয়ে গিয়েছে জাতীয় রাজনীতিতে। দু’‌জনের গোটা কথোপকথনের ট্রান্সস্ক্রিপ্ট টিআরপি দুর্নীতি মামলায় মুম্বই পুলিশের তৈরি ৩,‌৪০০ পাতার চার্জশিটে রয়েছে বলে জানা গেছে। 
ছড়িয়ে পড়া ট্রান্সস্ক্রিপ্টের ছবিতে দেখা গিয়েছে, গত বছর ২৩ জানুয়ারি তারিখে পার্থকে অর্ণব লিখছেন, ‘‌বড় কিছু ঘটতে চলেছে।’‌ কথায় কথায় দাউদের প্রসঙ্গও এসেছে। চ্যাটে অর্ণব জানান, ‘এবার আরও বড় কিছু ঘটানো হবে।’‌ উত্তরে পার্থ‌ দাশগুপ্ত লেখেন, ‘‌খুবই ভাল। ওনার নির্বাচনে জয় নিশ্চিত। হামলা নাকি তার থেকেই বড় কিছু?‌’‌ অর্ণব বলেন, ‘‌সাধারণ হামলার চেয়ে বড় কিছু। এছাড়াও কাশ্মীর নিয়ে বড় পদক্ষেপ করা হতে পারে। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এমন কিছু ঘটানো হবে যাতে সাধারণ মানুষ গর্ববোধ করেন। যা বলা হয়েছে, তাই বলছি।’‌ 
হোয়াটস্‌অ্যাপে পার্থ দাশগুপ্তর সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের নেতা–মন্ত্রী সহ প্রধানমন্ত্রীর সচিবালয়ের সঙ্গে তাঁর ঘনিষ্ঠতার প্রসঙ্গ বারবার টেনেছেন অর্ণব। চ্যাট মেসেজে দেখা যাচ্ছে, বার্কের গোপন নথি, চিঠিপত্র অর্ণবকে পাঠিয়েছিলেন পার্থ দাশগুপ্ত। তা নিয়ে জলঘোলা হতেই রিপাবলিকের সম্পাদকের কাছে সাহায্য চেয়েছিলেন প্রাক্তন বার্ক সিইও। আশ্বাসও দিয়েছিলেন অর্ণব, বলেছিলেন, তিনি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে কথা বলবেন এ ব্যাপারে। কিছু মেসেজে দেখা গেছে, ট্রাই–এর নতুন সংস্কারের কথা অর্ণবকে জানাচ্ছেন পার্থ দাশগুপ্ত। ওই সংস্কার আনা হলে রিপাবলিক টিভি চ্যানেলের পাশাপাশি বিজেপিরও বিরাট ক্ষতি হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। ট্রাই যাতে কোনওভাবেই সেই সংস্কার আনতে না পারে, তার জন্য অর্ণবকে বারবার প্রভাব খাটাতে বলেছেন তিনি। প্রয়োজনে‌ এবিষয়ে এএস (AS‌)‌–কে পদক্ষেপ করতে বলার জন্য অর্ণবের কাছে অনুরোধ করেছিলেন পার্থ দাশগুপ্ত। প্রশ্ন উঠছে, এই এএস (AS‌) কে?‌ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ?‌ কারণ গত বছর ১৫ অক্টোবরের কথোপকথনে পার্থকে অর্ণব লিখে পাঠিয়েছিলেন, ‘‌উইথ এএস’‌। অর্থাৎ ‘‌এএস–র সঙ্গে আছি।’‌ রিপাবলিক টিভির ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিও ঘেঁটে দেখা গেছে, ওই দিন অমিত শাহের সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন অর্ণব গোস্বামী। 
অর্ণব ও পার্থ দাশগুপ্তের মধ্যে হোয়াসট্‌অ্যাপে কথোপকথনের কয়েকটি স্ট্রিনশট তুলে ধরে টুইটারে আইনজীবী প্রশান্ত ভূষণ বলেন, ‘‌এঁদের কথোপকথনে অনেক চক্রান্তের প্রমাণ হাতেনাতে পাওয়া যাচ্ছে। বোঝা যাচ্ছে, এই সরকারের সঙ্গে তাঁদের যোগ ঠিক কতটা এবং কীভাবে নিজের পদকে কাজে লাগিয়ে ক্ষমতার অপব্যবহার করা হয়েছে!‌ যে দেশে আইনের শাসন রয়েছে, সে দেশে এই ঘটনা ঘটলে দীর্ঘ সময়ের জন্য হাজতবাস হত তাঁর (‌অর্ণব)।’ সাংবাদিক প্রশান্ত কানোজিয়া টুইটারে লেখেন, ‘‌এই দেশ–বিরোধী গোস্বামী শুধু একজন টিআরপি জঙ্গিই নন, আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগও রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। গোটা দেশ জানতে চায়, এখন কোথায় লুকিয়ে রয়েছেন এই টিআরপি জঙ্গি?‌’‌‌‌ 

 

Terrorist Attack on India was a "big win" for Arnab. He also knew about Balakot Air Strikes before they happened. EXPLOSIVE Arnab Goswami #WhatsAppLeaks

Posted by Dhruv Rathee on Friday, January 15, 2021
Posted by Dhruv Rathee on Thursday, January 14, 2021

জনপ্রিয়

Back To Top