আজকাল ওয়েবডেস্ক: আখচাষিদের অন্য ফসল ফলানোর দিকে মনোনিবেশ করতে বললেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। কারণ রাজ্যে মধুমেহ বাড়ছে, রাজ্যের বাসিন্দারা অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাই আখের বদলে অন্য ফসল ফলাতে বলা হয়েছে আখ চাষিদের।  
মঙ্গলবার, দিল্লি-যমুনেত্রী হাইওয়ের শিলান্যাস অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে এই মন্তব্য করেন আদিত্যনাথ। ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতীন গডকরি। সেখানেই চাষিদের উদ্দেশ্যে আদিত্যনাথ বলেন, ‘‌দিল্লির বাজার কাছেই, তাই আখ ছাড়াও অন্য ফসল ফলানোর কথা ভাবতে পারে তাঁরা৷ কোনও পৃথকীকরণ না করে শহরের সঙ্গে সঙ্গে গ্রামেও পর্যাপ্ত বিদ্যুতের ব্যবস্থা করা হয়েছে, বসপা-সপা সরকারের সময় যে বৈষম্য নজরে আসতো তা তাঁর সরকার করে না৷’‌ এর আগে গত জুনে আখ চাষিদের জন্য কেন্দ্রীয় সরকার ৮০০০ কোটি টাকার প্যাকেজ ঘোষণা করতে চলেছে বলে জানা গিয়েছিল৷ চিনির কারখানা মালিকদের কাছে চাষিদের পাওনা টাকার পরিমাণ দেখে আশঙ্কিত কেন্দ্র সরকার৷ দেশজুড়ে বিভিন্ন উপনির্বাচনে হার এবং সেই সঙ্গে বিভিন্ন রাজ্যে বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে হয়ে চলা কৃষক আন্দোলনে কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে কেন্দ্রের৷ শেষ পর্যন্ত, আখচাষিদের ক্ষোভ ঠান্ডা করতে না পারলে আগামী বছরের লোকসভা নির্বাচনে বড়সড় সমস্যার মুখে পড়বে বিজেপি সরকার, এটা পরিষ্কার হওয়ার পরেই ওই ঘোষণা বলে মনে করা হয়৷
প্রসঙ্গত, মোট ৮০০০ হাজার কোটি টাকার প্যাকেজের মধ্যে ৩০ লাখ মেট্রিক টন আখ সংরক্ষণ করে রাখার ব্যবস্থা, ইথানল উৎপাদন বাড়ানো, চিনির দাম বাড়ানো সহ একগুচ্ছ পরিকল্পনা রয়েছে৷ আখ চাষিরা চিনির কারখানা থেকে নেওয়া টাকাও যাতে সহজে মেটাতে পারেন এই প্যাকেজে সেই ব্যবস্থাও থাকবে বলে জানা গিয়েছিল৷

জনপ্রিয়

Back To Top