চন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়
শান্তিনিকেতন, ৫ জুলাই

উত্তরাখণ্ডের রামগড়ে এবার গড়ে উঠছে বিশ্বভারতীর দ্বিতীয় ক্যাম্পাস। উপাচার্য অধ্যাপক বিদ্যুৎ চক্রবর্তী জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল নিশঙ্কের কথামতো ১ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে এই ক্যাম্পাস গড়ে তোলার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বিশ্বভারতীর আচার্য নরেন্দ্র মোদির কথামতো এই ক্যাম্পাসে পাঠ্যসূচির মধ্যে স্কুল অফ গভর্ন্যান্স রাখা হচ্ছে। মোট ৫টি স্কুল খোলা হবে। স্কুল অফ ল্যাঙ্গুয়েজ, আর্ট অ্যান্ড কালচার, হিমালয়ান স্টাডি, সোশ্যাল সায়েন্স এবং পাবলিক পলিসি অ্যান্ড গুড গভর্ন্যান্স। মোট ২০টি বিভাগের কথা ভাবা হয়েছে।
উত্তরাখণ্ডের রামগড়ে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে ‘টেগোর টপ’। সেই পাহাড়ের মাথায় রয়েছে ১০ একর জমির ওপর বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বাড়ি। তিনি ১৯০৪, ১৯১৪ ও ১৯৩৭ সালে গিয়েছিলেন সেখানে, আর সেখানেই বিশ্বভারতী একটুকরো শান্তিনিকেতন তুলে নিয়ে যেতে চাইছে। উত্তরাখণ্ডের সরকার রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বাড়ির আশপাশের ৩০০ একর জায়গাও দিয়ে দেবে বিশ্বভারতীকে। ২০২১ সালেই বিশ্বভারতী তাদের দ্বিতীয় ক্যাম্পাস গড়ে তুলতে বদ্ধপরিকর। ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে ১ হাজার কোটি টাকার প্রস্তাব পাঠিয়ে কর্মসমিতির বৈঠকে নীতিগত সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়ে গেছে‌।‌       ছবি: সংগৃহীত

জনপ্রিয়

Back To Top