আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ অবশেষে অবসান সমস্ত টানাপোড়েনের। গুরু নানকের ৫৫০ তম জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য কর্তারপুর যাওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করেছিলেন কংগ্রেস নেতা নভজ্যোৎ সিং সিধু। তিনবার কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে চিঠিও লিখেছিলেন। এরপরও কেন্দ্রীয় সরকার তাঁকে অনুমতি না দিলে সাধারণ পর্যটকের মতোই পাকিস্তানে যাবেন বলে জানিয়েছিলেন। এখন আর সেই পথ ধরতে হবে না তাঁকে। বৃহস্পতিবার কেন্দ্র পাকিস্তানে যাওয়ার জন্য তাঁকে রাজনৈতিক ক্লিয়ারেন্স দিয়েছে। ফলে আগামী ৯ নভেম্বর কর্তারপুর সাহিব করিডরের উদ্বোধনের দিন পাকিস্তানে যেতে পারবেন তিনি। 
সূত্রের খবর, কেন্দ্রের দেওয়া অনুমতি অনুযায়ী ভারত থেকে পুণ্যার্থীদের প্রথম যে দলটি পাকিস্তানে যাবে তাতেই একমাত্র থাকতে পারবেন সিধু। এর বাইরে অন্য কোথাও যেতে পারবেন না তিনি। ওই দলে থাকবেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দার সিং ও দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। তবে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী একজন রাজনৈতিক নেতা হিসেবে নয়, তীর্থযাত্রী হিসেবে কর্তারপুরে যাচ্ছেন।
গত বছর আগস্ট মাসে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ইসলামবাদ গিয়েছিলেন সিধু। আর সেখানে গিয়ে পাকিস্তানের সেনা প্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাওজার সঙ্গে কোলাকুলি করেছিলেন। সেই ছবি প্রকাশ্যে আসতেই ভারত জুড়ে বিতর্ক তৈরি হয়। বাধ্য হয়ে বিষয়টি সিধুর ব্যক্তিগত বলে দায় এড়িয়ে যায় কংগ্রেস। যদিও বিতর্ক পিছু ছাড়েনি। 

জনপ্রিয়

Back To Top