আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ শবরীমালা সফররত পুণ্যার্থীদের শহুরে নকশাল এবং নাস্তিক বলে উল্লেখ করে বিতর্কে জড়ালেন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী। গত রবিবার বিদেশ‌ মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী ভি মুরলীধরণ শবরীমালার পুণ্যার্থীদের সম্পর্কে বলেছেন, ‘‌ওই মানুষরা সবাই শহুরে নকশাল, নৈরাজ্যবাদী এবং নাস্তিক। আমি মনে করি না ওরা পুণ্যার্থী। ওরা দেখাতে যায় যে ওরা শবরীমালা মন্দিরে গিয়েছে। ওরা সত্যিই পুণ্যার্থী কিনা তা খতিয়ে দেখা দরকার।’ শবরীমালা নিয়ে কেরলের বামপন্ধী সরকার সম্পর্কে মুরলীধরণের মন্তব্য, ‘‌সুপ্রিম কোর্ট এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়নি। আর সবাই চাইছে শবরীমালার সংস্কৃতি বজায় রাখতে। কেরল সরকার সেটা মাথায় রেখেই পদক্ষেপ করছে এবং এতে তারা খুবই চাপে আছে।

’‌
আয়াপ্পা স্বামী মন্দিরে ঋতুমতী মহিলাদের প্রবেশাধিকার নিয়ে দায়ের হওয়া মামলা পুনর্বিবেচনার জন্য শুক্রবার উচ্চতর বেঞ্চে পাঠায় সুপ্রিম কোর্ট। তারপরই গত শনিবার ৪১ দিনব্যাপী মণ্ডল–মকরাভিলাক্কু বার্ষিক পুজোর জন্য খুলে দেওয়া হয় মন্দিরের দরজা বলে রবিবার জানান দেবস্বোম বোর্ডের মন্ত্রীর কাডাকামপল্লী সুদর্শন। প্রথম দুদিনের পুজোয় ইতিমধ্যেই ৩.‌৩২ কোটি টাকা প্রণামী জমা পড়েছে মন্দিরের দানপেটিতে। তার মধ্যে এক কোটি টাকা শুধু নগদ দান হিসেবে এসেছে ভক্তদের কাছ থেকে। শীর্ষ আদালত এখনও মহিলাদের প্রবেশাধিকার নিয়ে কিছু রায় না দিলেও শনিবার ৩০ জনের একটি দলে ১০ জন মহিলা পুণ্যার্থী মন্দিরে যাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু তাঁদের পাম্বা থেকে সেদিনই ফিরিয়ে দেওয়া হয়।
ছবি:‌ এএনআই       

জনপ্রিয়

Back To Top