আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ডলারের তুলনায় টাকার দামের ক্রমাগত পতন রুখতে রিজার্ভ ব্যাঙ্ককে হস্তক্ষেপ করতে বলল কেন্দ্র। গত মাসে ভারতীয় মুদ্রাই ছিল বিশ্ব অর্থনীতিতে সব থেকে খারাপ অবস্থায়। অর্থ মন্ত্রকের সঙ্গে আরবিআই–এর আধিকারিকরা এবিষয়ে বৈঠক করেন। টাকার মূল্য ফেরাতে আরবিআই–কে কড়া ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছে অর্থ মন্ত্রক। বিকল্প ব্যবস্থা হিসেবে প্রবাসী ভারতীয়দের জন্য জমা প্রকল্পে জোর দিতে বলা হয়েছে। এই বছর এখনও পর্যন্ত ডলার পিছু টাকার দাম পড়েছে ১১.‌৬শতাংশ। যা ২০১১ সালের পর এই প্রথম। বিশ্ববাজারে অপরিশোধিত তেলের দামের বৃদ্ধি, তুরস্কের মুদ্রার পতনের মতো কয়েকটি ইস্যুতে গত মাসের পর এই মাসেও টাকার দাম পড়েছে। সোমবার বাজার বন্ধ হওয়ার সময় ডলার পিছু টাকার দাম ছিল ৭২.‌৪৫ টাকা। মঙ্গলবার সকালে বাজার খোলার পর ৯টা নাগাদ টাকার দাম ০.‌০২ শতাংশ বেড়ে ডলার পিছু টাকার দাম দাঁড়ায় ৭২.‌৪২ টাকা। তথ্য বলছে, ডলারের তুলনায় টাকার দামের এই অমূল্যায়ন রুখতে গত মে মাসে আরবিআই ৫.‌৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং গত জুনে ৬.‌১৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বিদেশি মুদ্রা বিক্রি করেছিল। তা সত্ত্বেও গত মাস এবং এই মাসে টাকার পতন রোখা যায়নি। এদিন সেনসেক্সের সূচক ৮৪.‌৫৮ পয়েন্ট বা ০.২২শতাংশ উঠে হয়েছে ৩৮০০৬.৭৫ পয়েন্ট। নিফটির সূচক দাঁড়ায় ১১৪৩৪.৪৫ পয়েন্টে।                      

জনপ্রিয়

Back To Top