আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ স্বাধীনতার আন্দোলনের সময় স্বদেশি দ্রব্য বাঁচাতে মানুষকে পথে নামতে দেখা গিয়েছিল। কিন্তু স্বাধীনতা লাভের ৭৫ বছর পর বিদেশি পণ্যের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করার আর্জি বেশ বেমানান। কারণ এখন মুক্ত বাণিজ্য নীতি নিয়ে চলছে বেশিরভাগ দেশ। আর আদান–প্রদান বাণিজ্যের ফলে প্রত্যেকে প্রত্যেকের পণ্য ক্রয় করতে সক্ষম। এই পরিস্থিতিতে অবসরপ্রাপ্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত কেন্দ্রীয় সরকারকে চিঠি লিখে জানিয়েছেন, চীনের তৈরি টেলিকমের যন্ত্রপাতির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করুক ভারত সরকার। 
কেন এই চিঠি লিখলেন তিনি?‌ কেন্দ্রীয় সরকারকে লেখা এই চিঠিতে তিনি উল্লেখ করেছেন, এই নিষেধাজ্ঞার প্রয়োজন দেশের জাতীয় এবং আর্থিক নিরাপত্তার স্বার্থে। প্রাক্তন ভারতীয় রাষ্ট্রদূত স্মিতা পুরুষোত্তম ১৬ জানুয়ারি চিঠিটি লিখেছেন। টেলি–যোগাযোগ মন্ত্রকের সচিব অংশু প্রকাশকে তিনি এই চিঠি পাঠিয়েছেন। সেখানে বেশি করে দেশীয় উৎপাদন বাড়াতে আর্জি জানিয়েছেন। অর্থাৎ টেলিকম ক্ষেত্রে দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি যন্ত্রপাতি। 
সরকারের ভূমিকা কী?‌ এই চিঠির প্রেক্ষিতে অবসরপ্রাপ্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠানো হয়েছে পাল্টা চিঠি দিয়ে। ২০ ফেব্রুয়ারি তাঁর সঙ্গে বৈঠকে বসতে চলেছে মন্ত্রকের আধিকারিকরা। কেন তিনি এই আর্জি করলেন?‌ কোন আশঙ্কার থেকে এই চিঠি লিখেছেন?‌ তা জানতে চাওয়া হবে বলে খবর। 

জনপ্রিয়

Back To Top