আজকাল ওয়েবডেস্ক: ‘‌আমি একজন কৃষক। কখনও মনে করিনি যে সরকার কৃষকদের ক্ষতি করতে চায়’ কৃষকের বিলের পক্ষে যুক্তি‌ দিলেন দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। 
‘‌আজ রাজ্যসভায় যে ‘‌নাটকটি’‌ ঘটল, তা আদপে কৃষকদের মনে ভুল ধারণা তৈরি করার জন্য।’‌ সাংবাদিকদের সামনে এই যুক্তিটি দেওয়ার পর রাজনাথ সিং নিজের উদাহরণ টেনে বললেন, তিনিও একজন কৃষক। তিনি কখনওই মনে করেননি যে সরকার কৃষকদের ক্ষতি করতে চায়। তাঁর দাবি, ‘‌আচ্ছা যদি ধরে নিই যে তাঁরা যা বলছেন তা সঠিক। যদি মেনেও নিই যে তাঁদের কথা শোনা হয়নি। তারপরেও কি হিংস্র আচরণ করা ঠিক?‌ চেয়ারে উঠে পড়া বা মাইক ভাঙা!‌’‌
লোকসভার পর রাজ্যসভাতেও ধ্বনিভোটে পাশ হয়ে গেল জোড়া কৃষি বিল। বিলের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ জানিয়েছিলেন বিরোধীরা। বিতর্কের মাঝে ওয়েলে নেমে গেলেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়েন। রাজনাথের কথায়, ‘‌সংসদের রুলবুক ছেঁড়ার চেষ্টা করলেন। বিক্ষোভ দেখাতে ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ নারায়ণের মাইকও কেড়ে নিতে গেলেন তিনি।’‌ রাজ্যসভার এই ঝামেলার কিছুক্ষণ আগে টুইটারে ডেরেক লিখেছিলেন, ‘‌প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, ২০২২–এর মধ্যে কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করবেন। এই হারে হলে, ২০২৮ সালের আগে হবে না। আপনাদের বিশ্বাসযোগ্যতা শূন্য। চারটির মধ্যে মাত্র একটি ইস্যু হল এমএসপি (‌মিনিমাম সাপোর্ট প্রাইস)‌‌। আমরা কৃষি বিলেরও বিরোধিতা করছি।’‌ মোদি বলেছিলেন, কৃষকদের ভুলপথে চালিত করা হচ্ছে। এই নিয়েও প্রধানমন্ত্রীকে একহাত নেন ডেরেক। বলেন, এসব বলার বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়েছেন তিনি। ৫৯ বছরের তৃণমূল সাংসদ এ কথাও ভিডিওতে বলেন, বাংলায় ২০১১ সাল থেকে এখন কৃষকদের আয় দ্বিগুণ, বলা যায় তিন গুণ হয়েছে। 

জনপ্রিয়

Back To Top