আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ জেট এয়ারওয়েজ বন্ধ। চাকরি নেই। যে ব্যাঙ্কে ৯০ লক্ষ টাকা আমানত করেছিলেন, সেখানেও দুর্নীতির কারণে টাকা ফেরত পাওয়ার আশায় প্রশ্নচিহ্ন ঝুলছে। সংসার, পরিবারের দায়িত্ব, আর্থিক সঙ্কটের আশঙ্কায় জর্জরিত হয়েই ছিলেন। এরপর মুম্বইয়ে পিএমসি আন্দোলনকারীদের আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরই মৃত্যু হল ৫১ বছরের প্রাক্তন জেটকর্মী সঞ্জয় গুলাটির। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার     রাতে মুম্বইয়ের ওশিয়ারা থানা এলাকার তারাপোর গার্ডেন্সে। এদিন সকালে নিজের ৮০ বছরের বাবাকে নিয়ে এসপ্ল্যানেড আদালতের সামনে অন্য গ্রাহকদের সঙ্গে বিক্ষোভ দেখান সঞ্জয়। রাতে খেতে বসে টেবিলেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি। বাবা ছাড়াও তাঁর  স্ত্রী এবং দুই সন্তান আছে। মঙ্গলবার সকালে ওশিয়ারা শ্মশআনঘাটে তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।
সঞ্জয়ের আত্মীয় রাজেশ দুয়া বললেন, ‘‌জেটের ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন তিনি। কিন্তু গত পাঁচ আগে জেট বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর চাকরি হারান। তাতে এমনিতেই মানসিকভাবে বিধ্বস্ত ছিলেন সঞ্জয়। তবে পিএমসি–র ওশিয়ারা শাখায় ৯০ লক্ষ টাকার আমানত থাকায় কিছুটা হলেও নিশ্চিন্ত ছিলেন। ভেবেছিলেন ওই টাকা দিয়ে কিছু করবেন পরে। কিন্তু বিক্ষোভ মিছিল থেকে ফেরার পরই অত্যন্ত ভেঙে পড়েছিলেন। সংসার সামলানো, পরিজনদের চিকিৎসা করা সব কিছুই কঠিন হয়ে যাচ্ছিল ওনার। ওনার কিন্তু কোনওরকম অসুখ ছিল না।’ পিএমসি আমানতকারীদের তরফেও সঞ্জয়ের মৃত্যুতে শোকজ্ঞাপন করা হয়েছে বিবৃতি দিয়ে। সঞ্জয়ের মৃত্যুতে রীতিমতো আতঙ্ক গ্রাস করেছে পিএমসি আমানতকারীদের। আরবিআই আর কবে এব্যাপারে পদক্ষেপ করবে এদিন সেই প্রশ্ন তুলেছেন তাঁরা।
ছবি:‌ এএনআই ‌   

জনপ্রিয়

Back To Top