আজকালের প্রতিবেদন,দিল্লি:  এবার উত্তর–পূর্ব ভারতে ব্যবসা বাড়ানোর উদ্যোগ নিল পতঞ্জলি। বুধবার দিল্লির তালকাটোরা ইনডোর স্টেডিয়ামে নেপালি সংস্কৃতিকে তুলে ধরে ‘‌হরিতালিকা তিজ ফেস্টিভ্যাল’–এর আয়োজন করেছিল পতঞ্জলি যোগপীঠের হামরো স্বভিমান ট্রাস্ট। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী কিরণ রিজিজু। ছিলেন যোগগুরু বাবা রামদেব। এদিন পতঞ্জলির  বিভিন্ন পণ্য বিনামূল্যে বিলি করা হয়। প্রতি বছর এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে হামরো স্বভিমান ট্রাস্ট (পতঞ্জলির একটি অংশ)‌‌। নেপালিভাষী কয়েক হাজার মানুষ এদিনের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন। আগামী দিনে উত্তর–‌পূর্ব ভারতে পতঞ্জলির বিভিন্ন পণ্য ছড়িয়ে দিতে এমন অনুষ্ঠানের আয়োজন। 
বাবা রামদেব বলেন, দেশের অখণ্ডতা ও সামাজিক ঐক্য বজায় রাখতে জাতি–ধর্ম–বর্ণ নির্বিশেষে সবাইকে একসঙ্গে এগিয়ে আসতে হবে। তাঁর কথায়, সবার আগে জাতীয়তাবাদ। মাতৃভূমি রক্ষার জন্য লড়াই করতে হবে। নেপালের সঙ্গে ভারতের হাজার বছরের সাংস্কৃতিক সম্পর্ক। স্টেডিয়ামে উপস্থিত মানুষের উদ্দেশে নেপালি ভাষায় চার লাইন গান গেয়ে শোনান বাবা রামদেব। ভিডিওবার্তা পাঠান পতঞ্জলি গ্রুপের আচার্য বালাকৃষ্ণও। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী কিরণ রিজিজু বলেন, ‘হরিতালিকা তিজ ফেস্টিভ্যালে এসে ভাল লাগছে।’‌ গোর্খাদের প্রশংসা করে তিনি বলেন, ‘‌নেপালিদের সংস্কৃতির সঙ্গে আমাদের অনেক মিল রয়েছে।’‌ ভারতের জন্য নেপালিদের অবদান অস্বীকার করা যায় না বলেও তিনি মন্তব্য করেন।‌

জনপ্রিয়

Back To Top