আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ মঙ্গলবারই সংসদ বয়কট করে বিরোধীরা। তিনটি দাবি তুলে ধরেন রাজ্যসভায় বিরোধী নেতা গুলাম নবি আজাদ। জানান, এই তিনটি দাবি সরকার না মানলে বিরোধীরা অধিবেশনে যোগ দেবে না। এর মধ্যেই বুধবার বিকেল পাঁচটায় রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গে দেখা করছেন বিরোধী নেতারা। দাবি, কৃষি বিল প্রত্যাহার করতে হবে। 
করোনা বিধির কারণে মাত্র পাঁচ জন বিরোধী নেতাকেই রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাতের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। 
রবিবার রাজ্যসভায় পাশ হয় জোড়া কৃষি বিল। প্রতিবাদে ওয়েলে নেমে বিক্ষোভ দেখান তৃণমূলের ডেরেক সহ বিরোধী সাংসদরা। ডেপুটি চেয়ারম্যানের মাইক কেড়ে নিতে যান। সোমবার এই সোরগোলের জন্য আট সাংসদকে সাসপেন্ড করা হয় রাজ্যসভা থেকে। রাতভর তাঁরা সংসদ কক্ষের বাইরে ধরনায় বসেন। পাশে দাঁড়ান বিরোধীরা।
প্রতিবাদে মঙ্গলবার সংসদ বয়কট করেন বিরোধীরা। তার পরই ধরনা তুলে নেন সাসপেন্ড হওয়া আট সাংসদ। রাজ্যসভায় বিরোধী নেতা গুলাম নবি আজাদ সরকারের সামনে তিনটি দাবি রাখেন। এক, আট সাংসদের সাসপেনশন তুলে নিতে হবে। দুই, সরকার একটি বিল আনুক, যাতে বেসরকারি সংস্থা কৃষকদের থেকে ন্যূনতম সহায়ক মূল্য (‌এমএসপি)‌–র কম দামে ফসল ক্রয় করতে না পারে। সেই এমেসপি নির্ধারণ করবে সরকারই। তিন নম্বর দাবি, এমএস স্বামীনাথন কমিটির সুপারিশ মেনে এমএসপি নির্ধারণ করতে হবে। 
এদিন কৃষি বিল নিয়ে এই আবেদনগুলোই ফের রাষ্ট্রপতির কাছে তুলে ধরবেন বিরোধীরা। আর্জি জানাবেন, তিনি যেন ওই বিলে সই না করেন। গত কাল তা নিয়ে ১৭টি দলের তরফে আলাদা করে চিঠিও দেওয়া হয় রাষ্ট্রপতিকে।

 

ছবি:‌ রাজ্যসভার বিরোধী নেতার কক্ষে আলোচনায় সাংসদরা। এএনআই থেকে

জনপ্রিয়

Back To Top