আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ধর্ষণের পর খুন করে মৃতদেহ জ্বালিয় দেওয়া। হায়দরাবাদের পশু চিকিৎসকের সঙ্গে ঘটে যাওয়া নির্মম ঘটনা, নাড়িয়ে দিয়েছে গোটা দেশকে। উত্তাল ভারত। দোষীদের মৃত্যুদণ্ডের দাবি তুলেছেন দেশবাসী। এই পরিস্থিতিতে বিতর্কে জড়ালেন তেলঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও বা কেসিআর। ওই ঘটনার পর বেশ কয়েকদিন কেটে গেলেও মৃতার পরিবারের সঙ্গে দেখা করলেন না মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু তাঁকে দেখা যাচ্ছে বড় বড় বেশ কয়েকটি বিয়েবাড়িতে। আর এই নিয়েই বিতর্কের মধ্যে পড়েছেন কেসিআর।
গত ২৮ নভেম্বর মর্মান্তিক ওই ঘটনাটি ঘটেছিল। অথচ সেসময় দিল্লিতে ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। এরপর মঙ্গলবার রাজধানীতে একটি বিয়েবাড়িতে গিয়েছিলেন তিনি। মঙ্গলবার রাতেই রাজ্যে ফিরলেও বুধবার সকালে ফের তাঁকে হায়দরাবাদের একটি বিয়েবাড়িতে দেখা গিয়েছিল। অর্থাৎ গত ছ’‌দিনে তিনটি বিয়েবাড়িতে গিয়েছিলেন কেসিআর। অথচ এখনও পর্যন্ত মৃত ওই পশু চিকিৎসকের বাড়িতে বা তাঁর বাড়ির লোকজনের সঙ্গে দেখা করতে পারেননি। এমনকী ফোনেও কথা বলেননি। আর এই নিয়েই তৈরি হয়েছে বিতর্ক। সমালোচনায় মুখর বিরোধীরা। তবে তাতেও হেলদোল নেই কেসিআর–এর। রাজ্যের মহিলাদের নিরাপত্তা সংকটে, আর তিনি ব্যস্ত বিয়েবাড়ির ভোজ খেতে।

জনপ্রিয়

Back To Top