আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ রাফাল যুদ্ধবিমান নিয়ে যখন সংসদ ও সংসদের বাইরে রাজনৈতিক উত্তাপ ছড়িয়েছে, তখন এই যুদ্ধবিমান হাতে না থাকলে দেশ ভয়ঙ্কর হুমকির মুখে পড়তে পারে বলে জানালেন বায়ুসেনা প্রধান বিএস ধানোয়া। এমনকী ভারতের কাছে এই যুদ্ধবিমান কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা বুধবার স্পষ্ট করলেন বায়ুসেনা প্রধান বিএস ধানোয়া। দিল্লিতে বায়ুসেনার এক আলোচনাসভায় বিএস ধানোয়া বলেন, ‘‌এই মুহূর্তে অত্যাধুনিক রাফাল না থাকায় দেশকে ‘ভয়ঙ্কর হুমকি’র মুখে পড়তে হতে পারে।’‌ 
দিল্লির আইএএফ’স ফোর্স স্ট্রাকচার ২০৩৫ শীর্ষক আলোচনাসভায় চীন বা পাকিস্তানের নাম না করে ধানোয়া বলেন, ‘‌শত্রুপক্ষ রাতারাতি রণকৌশল বদলাতে পারে। তাই ভারতকে যে কোনও পরিস্থিতে প্রস্তুত থাকতে হবে। প্রতিবেশীরা ঘুমিয়ে নেই। চীনের মতো প্রতিবেশী তাদের বায়ুসেনাকে প্রতি মুহূর্তে অত্যাধুনিক ধাঁচে গ‌ড়ে চলেছে। তাই ভারতেরও ক্ষমতা অনুযায়ী অত্যাধুনিক সামরিক প্রযুক্তি প্রয়োজন। দেশের নিরাপত্তাকে আরও শক্তিশালী করতে রাফাল বিমান এবং এস–৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র কিনছে কেন্দ্র।’‌ 
রাফাল নিয়ে ভারত এবং ফ্রান্স দুই সরকারের যৌথ অন্তর্বর্তী চুক্তি স্বাক্ষর হয়। জানা যাচ্ছে, ২০১৯ সালের শুরুতেই মোট ৩৬টি রাফাল যুদ্ধ বিমান দেশে নিয়ে আসছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরকার। ইতিমধ্যেই তা নিয়ে বিস্তর রাজনৈতিক জলঘোলা শুরু হয়েছে। তারই মধ্যে রাফাল যুদ্ধবিমান নিয়ে বায়ুসেনা প্রধানের সওয়াল কৌশলগত কারণেই বলে মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা। 

জনপ্রিয়

Back To Top