আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সোশ্যাল মিডিয়ার অপব্যবহার রুখতে কেন্দ্রকে বিধি তৈরির নির্দেশ দিয়েছিল দেশের শীর্ষ আদালত। গত ২৪ সেপ্টেম্বর আদালত এই নির্দেশ দিয়েছিল। জানিয়েছিল, তিন সপ্তাহের মধ্যে এই বিধি তৈরি করতে হবে। সেই বিধি এখনও তৈরি করে উঠতে পারেনি কেন্দ্রের মোদি সরকার। তাই এবার বিধি তৈরির সময়সীমা তিনমাস বাড়ানোর আবেদন জানিয়ে শীর্ষ আদালতকে একটি হলফনামা জমা দিল কেন্দ্র। সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছিল, প্রযুক্তি যেমন দেশেকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে, পাশাপাশি তার অপব্যবহারও হচ্ছে। যার পরিণতি হচ্ছে বিপজ্জনক। উদাহরণ সোশ্যাল মিডিয়া। সোশ্যাল মিডিয়ায় বহু ভুয়ো খবর ছড়িয়ে পড়ে। যার থেকে পরে নানা অপ্রীতিকর ঘটনার সৃষ্টি হয়। সেই খবরের সূত্রপাত কীভাবে বা কে ছড়াল, তা জানা এখনও বেশ কঠিন। দেশের নিরাপত্তা কথা মাথায় রেখেই সোশ্যাল মিডিয়ার অপব্যবহার নিয়ে কিছু বিধি থাকা উচিত। একথাই জানিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। 
সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুয়ো খবর রুখতে অ্যান্টনি ক্লিমেন্ট এবং জননী কৃষ্ণমূর্তি নামে দুই ব্যক্তি মাদ্রাজ হাইকোর্টে সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টের সঙ্গে আধার যুক্ত করার দাবি জানিয়ে মামলা করেছিলেন। ফেসবুকের পক্ষ থেকে এই মামলাটি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে চ্যালেঞ্জ জানানো হয়। তাদের দাবি, সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টের সঙ্গে আধার যুক্ত করলে গ্রাহকদের তথ্য ফাঁস হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। সেই মামলার প্রেক্ষিতেই এই নির্দেশ দিয়েছে দেশের শীর্ষ আদালত। এবিষয়ে কেন্দ্রকে পদক্ষেপ নিতে বলেছিলেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি দীপক গুপ্ত ও বিচারপতি অনিরুদ্ধ বসুর বেঞ্চ। ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top