রাজীব চক্রবর্তী, দিল্লি, ৬ জুন- বছর পাঁচেক আগে সংসদে দাঁড়িয়ে মনরেগা প্রকল্পকে ‘‌কংগ্রেস জমানার ঐতিহাসিক ভুল’‌ বলেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। গতবছর কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর মনরেগা প্রকল্প বন্ধ করার দাবি তুলেছিলেন। 
লকডাউন চলাকালীন গত দু’‌‌মাসে দেশে ২ কোটি ৬৩ লক্ষ পরিবারের ভরসা এই প্রকল্পই। গড়ে ১৭ দিন কাজ পেয়েছেন গরিব মানু্ষ।
গ্রামীণ এলাকায় গরিব মানুষের হাতে টাকা পৌঁছে দিতে ২০০৫ সালে ‘‌মহাত্মা গান্ধী ন্যাশনাল রুরাল এমপ্লয়মেন্ট গ্যারান্টি অ্যাক্ট’‌ বা ‘‌একশো দিনের কাজ’‌ প্রকল্প এনেছিল তৎকালীন ইউপিএ সরকার। লকডাউন চলাকালীন বিজেপি–‌‌শাসিত রাজ্য উত্তরপ্রদেশে মনরেগা প্রকল্পে কাজ পেয়েছে ৪০ লক্ষ পরিবার। গত দু’‌‌মাসে গড়ে ১৫ দিন কাজ জুটেছে। 
বছর পাঁচেক আগে তৎকালীন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির ভাষণের ওপর ধন্যবাদসূচক প্রস্তাবে লোকসভায় ভাষণ দিতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন, ‘‌আমার রাজনৈতিক অভিজ্ঞতা বলে মনরেগা কখনও বন্ধ কোরো না। বন্ধ করব না। কারণ, এই প্রকল্প আপনাদের (‌ইউপিএ)‌ ব্যর্থতার জলজ্যান্ত উদাহরণ। স্বাধীনতার ৬০ বছর পরেও মানুষকে গর্ত খুঁড়তে পাঠাতে হচ্ছে!‌ আমি জাঁকজমকপূর্ণ ভাবে এই প্রকল্পের ঢাক পেটাব। গোটা বিশ্বকে বলব, তোমরা এই যে গর্ত খুঁড়ছো, এটা ৬০ বছরের পাপের ফল।’‌ সেদিন প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের পর এনডিএ সাংসদদের টেবিল চাপড়ানোর আওয়াজে কেঁপে উঠেছিল লোকসভা। 
এখন যখন দু’‌‌মাসের বেশি টানা লকডাউনে দেশজুড়ে লক্ষ লক্ষ শ্রমিক যখন নিজের ঘরে ফিরে যাচ্ছে, তখন মনরেগাই গ্রামীণ এলাকার শ্রমিকদের রোজগারের পথ দেখিয়েছে। ২৫ মার্চ থেকে গত দু’‌‌মাসে দেশের গ্রামীণ এলাকায় ২.‌৬৩ কোটি পরিবারের রোজগার দিয়েছে মনরেগা। প্রতিটি পরিবার ৬০ দিনের মধ্যে গড়ে ১৭ দিন কাজ পেয়েছে। পেট ভরেছে। গত বছর ৫.‌৪৮ কোটি পরিবার গড়ে ৪৮ দিন কাজ পেয়েছিল। চলতি বছরে গত দু’‌‌মাসের হিসেব তার কাছাকাছি রয়েছে।
মনরেগা প্রকল্পে সবচেয়ে বেশি উপকৃত বিজেপি–‌‌শাসিত উত্তরপ্রদেশ। লকডাউনে এই রাজ্যে মনরেগা প্রকল্পে ৪০ লক্ষ পরিবার কাজ পেয়েছে। শ্রমিকরা পেয়েছেন ১০৯১ কোটি টাকা। ৪৩ হাজার জায়গায় কাজ হয়েছে। গত ১৭ মে মনরেগা প্রকল্পে অতিরিক্ত ৪০ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ হয়। এবার বাজেটে এই প্রকল্পে ৬১,৫০০ কোটি ধার্য হয়েছিল। অর্থাৎ বাজেট ৬৫ শতাংশ বাড়িয়ে দিয়েছে সরকার। কারণ, লকডাউনে গ্রামীণ এলাকায় এই একটি মাত্র প্রকল্পই সরাসরি গরিব মানুষের আয়ের উপায় হয়ে দাঁড়িয়েছে।
গতবছর জুলাইয়ে কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর বলেছিলেন, ‘‌সরকার বেশিদিন মনরেগা প্রকল্প চালাতে চায় না। কারণ, এই প্রকল্পটি গরিবের জন্য। কিন্তু, সরকার দারিদ্র দূর করতে চায়।’‌ এখন তাঁর বক্তব্য জানা যায়নি।‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top