আজকাল ওয়েবডেস্ক: পাঞ্জাবে বিষমদ কাণ্ডের অন্যতম অভিযুক্ত, মিথানল বিক্রেতা রাজীব জোশি সহ তিনজন গ্রেপ্তার হয়েছে। মঙ্গলবার ধমিন্দর নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তার কাছ থেকে ৫০ লিটার অ্যালকোহল বাজেয়াপ্ত হয়েছে। একথা জানিয়েছেন পাঞ্জাব পুলিশের ডিজি। তাকে বাটালায় ১৩জনের মৃত্যুর অভিযোগে ধরা হয়েছে। পাঞ্জাবের বিষমদ কাণ্ডে এপর্যন্ত ১১১জনের মৃত্যু হয়েছে।
এর আগে সোমবার সন্ধ্যায় এই মামলার অন্যতম অভিযুক্ত, লুধিয়ানার বাসিন্দা, মিথানল বিক্রেতা রাজীব গ্রেপ্তার হয়। মিথানল হল সেই রাসায়নিক যা চোলাই তৈরিতে ব্যবহৃত হয়। পুলিশের দাবি, জেরায় রাজীব স্বীকার করেছে যে তিন ড্রাম মিথানল বিক্রি করেছিল। জেরায় রাজীব একথাও স্বীকার করেছে, পাঞ্জাব এবং দিল্লির বিভিন্ন জায়গা থেকে সে বিভিন্ন প্রকারের স্পিরিট এবং অ্যালকোহল জোগার করত।
পুলিশ জানিয়েছে, এই তিনজনের গ্রেপ্তারির ফলে মোট ধৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৪০জন। তাদের মধ্যে তরণ তারণ থেকে ২১জন, অমৃতসর থেকে ১০জন এবং বাটালা থেকে ৯জন গ্রেপ্তার হয়েছে। গত ৩১ জুলাই থেকে তিন জেলায় মোট ৫৬৩টি অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং–এর নির্দেশে গত ২৪৫ ঘণ্টায় প্রচুর অবৈধ চোলাইয়ের ঠেক ভেঙেছে পুলিশ। ডিজিপি জানালেন, রাজীব সহ দুই পান্ডা ধরা পড়ায় এই চক্রের সঙ্গে আর কারা জড়িত, মিথানল সরবরাহকারী, চোলাই প্রস্তুতকারীদের ব্যাপারে অনেক তথ্য পাবে পুলিশ যা তদন্তে সহায়ক হয়ে উঠবে।     

জনপ্রিয়

Back To Top