আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিয়েতে রাজি না হওয়ায় কিশোরীকে গায়ে আগুন লাগিয়ে হত্যা করল অভিযুক্ত যুবক। ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে অভিযুক্তেরও। কিশোরীকে বাঁচাতে গিয়ে গুরুতর জখম তার বাবা। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সকালে কেরলের তিরবনন্তপুরমে। কেরল পুলিস সূত্রে খবর, মিদুন নামে মধ্য ২০–র ওই যুবক দীর্ঘদিন ধরেই ১৭ বছরের ওই কিশোরীকে বিয়ে করতে চেয়ে তাকে উত্যক্ত করছিল। কিন্তু মেয়ের বয়স কম হওয়ায় বিয়েতে নারাজ ছিলেন কিশোরীর বাবা, মা। কিশোরীও আগে পড়াশোনা শেষ করতে চেয়েছিল।  নাছোড় মিদুনের হাত থেকে রেহাই পেতে কিশোরী এবং তার বাবা, মা এরপর পুলিসে অভিযোগ দায়ের করেন। তখন মিদুন কিশোরীর পিছু আর না করার কথা বলে পুলিসকে আশ্বস্ত করেছিল। কিন্তু বৃহস্পতিবার সকালে সে কিশোরীর বাড়ি গিয়ে জোর করে ঢুকতে চাইলে তাকে বাধা দেয় কিশোরীর বাবা। কিশোরী বেরিয়ে এলে তার গায়ে দাহ্য তেল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয়। ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ হয় মিদুনও। মেয়েকে বাঁচাতে গিয়ে জখম হন তার বাবা। তিনজনকেই এর্নাকুলাম মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে গেলে কিশোরী এবং মিদুনকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কিশোরীর বাবা।
ছবি:‌ এনডিটিভি  

জনপ্রিয়

Back To Top