আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ জাতীয় নাগরিকপঞ্জিতে এবার সরাসরি ‘‌না’‌ করে দিল কর্নাটক। অসমের রাস্তায় এখনই হাঁটবে না বলে জানিয়ে দিল কর্নাটক সরকার। পরিবর্তে বৈধ কাগজপত্র এবং মেয়াদ উত্তীর্ণ ভিসা নিয়ে যেসব অনুপ্রবেশকারী এবং বিদেশিরা সেখানে বসবাস করছেন তাঁদের তালিকা তৈরি করা হবে দক্ষিণ ভারতের এই রাজ্যে। সোমবার এই কথা জানিয়ে দিল কর্নাটক সরকার। 
উল্লেখ্য, খুব শিগগিই অসমের ধাঁচে এনআরসি করা হবে কর্নাটকে বলে জানিয়েছিলেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাসবরাজ বোম্মানি। কেন্দ্রীয় সরকারের গোটা দেশে এনআরসি চালু করার প্রক্রিয়া হিসেবেই কর্নাটকে এনআরসি চালু করা হবে বলে জানিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সেই অবস্থান থেকে ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে গেল কর্নাটক সরকার। কর্নাটকে বর্তমানে অন্তত ৮০০ জন বিদেশি নাগরিক বেআইনিভাবে বসবাস করছেন বলে জানিয়েছেন ফরেনার্স রিজিওনাল রেজিস্ট্রেশন অফিসের আধিকারিক লভু রাম।
কর্নাটকের নেলামাংগালায় খোলার কথা ছিল দক্ষিণ ভারতের প্রথম ডিটেনশন সেন্টার। কিন্তু আগে নথি জোগাড় করে পরে এই রাস্তায় হাঁটা যেতে পারে বলে মনে করছে কর্নাটক সরকার। তাই এগিয়েও ব্যাকফুটে চলে গেল তারা। অসমে এনআরসি করতে গিয়ে সমালোচনার মুখ পড়তে হয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকারকে। তাই এই পরিস্থিতির উদ্ভব যাতে আর না হয় তাই এই কৌশল বলে মনে করা হচ্ছে। 

জনপ্রিয়

Back To Top