আজকাল ওয়েবডেস্ক: সোমবার ফের গ্রেপ্তার করা হল তিন কাশ্মীরি ছাত্রকে। কর্নাটকের হুবলিতে কেএলই ইনস্টিটিউট অফ টেকনলজিতে পড়েন আমির মহিনউদ্দীন ওয়ানি, বাসিত আসিফ সোফি, তালিব মাজিদ। প্রথমজন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং এর তৃতীয় বর্ষের ছাত্র, বাকি দুজন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং এর দ্বিতীয় সেমেস্টার দিচ্ছেন। এঁরা প্রত্যেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় কাশ্মীরের পুলওয়ামার ঘটনার এক বছরে পাকিস্তানের সমর্থন করে ভিডিও দিয়েছিলেন। তাই শনিবারই গোকুলরোড থানার পুলিশ গিয়ে তাঁদের গ্রেপ্তার করে।
পুলিশ কমিশনার আর দিলীপ বলেছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১২৪, ১৫৩ এ, ১৫৩ বি এই তিন ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তাঁদের বিরুদ্ধে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার অভিযোগ উঠেছে। জেলার বজরং দলের সভাপতি শিবানন্দ সত্তিগেরি এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদও করেছেন। 
বিশ্বিদ্যালয়ের অনেক ছাত্রও এনিয়ে ওই ছাত্রদের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে বিক্ষোভও করেছেন। রবিবার তাঁদের আইপিসির ১৬৯ ধারা অনুযায়ী জামিনে ছেড়ে দেওয়া হয়। সোমবার তাঁদের কোর্টে পেশ করা হয় আবার। রবিবার তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হলেও গোপন জায়গায় রাখা হয়। কারণ সাধারণ মানুষজন ওঁদের উপর ক্ষেপে আছেন। আপাতত পুলিশ কমিশনার বলছেন, ওঁদের আগামী ২ মার্চ অবধি বিচারবিভাগীয় হেপাজতে রাখা হচ্ছে। সোমবারই গ্রেপ্তার হওয়া তিনজনের মা বাবাকে হুবলিতে আসতে বলা হয়েছে। পুলিশ সূত্র অনুযায়ী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাসবরাজ বোমাইও এই মামলা সম্পর্কে পুলিশ কর্তাদের সঙ্গে কথা বলেছেন।

জনপ্রিয়

Back To Top