সংবাদ সংস্থা, চেন্নাই: আগাম পরিকল্পনা ছাড়া তড়িঘড়ি দেশজোড়া ২১ দিন লকডাউন কার্যকর করায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সমালোচনা করে খোলা চিঠি দিলেন দক্ষিণী অভিনেতা, চিত্রপরিচালক তথা রাজনীতিক কমল হাসন। কমল চিঠি লিখেছেন তঁার দল মাক্কাল নিধি মাইয়ামের সভাপতি হিসেবে। প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে সোমবারের এই চিঠিতে তিনি লিখেছেন, ‘আপনার হাতে সময় ছিল চার মাস। অথচ ১৪০ কোটি মানুষের দেশে চার ঘণ্টার মধ্যে লকডাউন জারি করেছেন। আমার আশঙ্কা, এবারও আপনি নোটবন্দির মতোই ভুল করলেন এবং করলেন আরও বড় আকারে।’ গত ২৩ মার্চ লকডাউন শুরুর আগেও মোদিকে চিঠি লিখেছিলেন হাসন। তাতে তিনি সমাজের দুর্বল অংশকে অনিশ্চয়তা থেকে বঁাচাতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আর্জি জানিয়েছিলেন। এবারের চিঠিতে হাসনের অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী এক দিকে সুবিধাভোগীদের বলছেন আলো জ্বালাতে, অন্য দিকে গরিব মানুষ অবর্ণনীয় দুর্ভোগে পড়েছেন। তঁার প্রশ্ন, অনেকেরই আনন্দ–‌উচ্ছ্বাস প্রকাশের ব্যালকনি আছে। কিন্তু যঁাদের মাথার ওপর ছাদটুকুও নেই, তঁাদের কী হবে? এর পরেই তঁার কটাক্ষ, ‘আপনি নিশ্চয়ই ব্যালকনির লোকেদের জন্য ব্যালকনি সরকার চান না!‌ যে–‌গরিবেরা আমাদের দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ অংশ, যঁাদের ওপর ভরসা করে উচ্চবিত্ত ও মধ্যবিত্তেরা টিকে রয়েছেন, তঁাদের সম্পূর্ণ অবজ্ঞা করবেন কীভাবে?’ চিঠির শেষে কমল হাসন লিখেছেন, ‘আমার আশা, দেশের কোনও লোক যাতে অভুক্ত না থাকে, আপনি তার নিশ্চিত ব্যবস্থা করবেন। এ দেশে কোভিড ১৯–‌এ হয়ত আরও মৃত্যু হবে। কিন্তু পাশাপাশি গরিবদের ক্ষুধা, ক্লান্তি ও বঞ্চনার একটা উর্বর ক্ষেত্র তৈরি হচ্ছে। কোভিড ১৯ চলে যাওয়ার অনেক দিন পরেও এই তিন সংক্রমণের প্রভাব থেকে যাবে।’‌

জনপ্রিয়

Back To Top