আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ কাশ্মীরে নয়া ভূমি সংস্কার আইন কার্যকর হওয়ার পর থেকে কেন্দ্রের মোদি সরকারকে নিশানা করতে শুরু করেছেন কাশ্মীরি পণ্ডিতরা। তাঁরা বলছেন, ‘‌কফিনের শেষ পেরেক পোঁতা হল। ঘরে ফেরা আরো কঠিন করে দিল মোদি সরকার।’‌ 
ভূমি সংস্কার আইনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে জম্মু–কাশ্মীরের স্থানীয় রাজনৈতিক দল পিডিপি থেকে শুরু করে ন্যাশনাল কনফারেন্স। ‘রিকনসিলেশন, রিটার্ন অ্যান্ড রিহ্যাবিলিটেশন ফর মাইগ্র‌্যান্টস’‌ সংগঠনের চেয়ারম্যান সতীশ মহলদার বলেন, গত ৩১ বছর ধরে অপেক্ষায় রয়েছি, কবে আমরা নিজেদের মাতৃভূমিতে ফিরে যাব!‌ এদিকে সরকার আমাদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা না করেই কাশ্মীরের জমি বিক্রির জন্য ছেড়ে দিচ্ছে। এখন আমাদের মধ্যে আশঙ্কা তৈরি হচ্ছে, এবার আমাদের মন্দির, ধর্মীয়–স্থল, সমস্ত কাশ্মীরি পণ্ডিতদের প্রতিষ্ঠানগুলির দখল নেবে জমি মাফিয়ারা। আমাদের দাবি, কাশ্মীরের নয়া জমি আইন নিষিদ্ধ করে আমাদের ঘরে ফেরানোর ব্যবস্থা করতে হবে সরকারকে।’‌

বলেন, ‘‌পাঁচ লক্ষ কাশ্মীরি পন্ডিত ঘরছাড়া। আর কতদিন আমাদের এই নরক যন্ত্রণা ভোগ করতে হবে?‌ এভাবে চলতে থাকলে একদিন আমাদের গোটা সম্প্রদায়ের লুপ্ত হয়ে যাবে। ৪১৯টি কাশ্মীরি পন্ডিত পরিবার পুনর্বাসনের জন্য কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে লিখিত দাবি জানিয়েছিল। উপত্যকার বিশেষ মর্যাদা খর্ব করার পর বছর ঘুরলেও আমাদের নিজভূমিতে ফিরিয়ে দেওয়ার ক্ষেত্রে সরকারের কোনও হেলদোল নেই।’‌

জনপ্রিয়

Back To Top