আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সরকারি ট্রেন চলাচলের বিষয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত না হলেও চলতি এপ্রিল মাসে চলবে না কোনও বেসরকারি ট্রেন। বর্তমানে দেশের তিনটি বেসরকারি ট্রেন পরিচালনা করে আইআরসিটিসি। লকডাউন উঠে গেলেও এপ্রিল মাসে এই তিনটি ট্রেন আর চলবে না। এমনটাই জানিয়েছে আইআরসিটিসি। 
বারানসী থেকে ইন্দোর যাওয়ার কাশী–মহাকাল এক্সপ্রেস, লখনউ–দিল্লি তেজস এবং আমদাবাদ–মুম্বই তেজস এক্সপ্রেস পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছে আইআরসিটিসি। তাঁরা আগেই জানিয়েছিল, লকডাউনের জন্য ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে না এই তিনটি ট্রেন। আর এবার পুরো মাসের জন্যই বাতিল হয়ে গেল এই তিনটি ট্রেন। দেশে করোনার সংক্রমণ বেড়ে চলার জন্যই এই সিদ্ধান্ত। যাঁরা ইতিমধ্যেই এই ট্রেনগুলির টিকিট কেটেছেন তাঁদের পুরো ভাড়াই আইআরসিটিসি ফেরত দিয়ে দেবে। এর আগে দেশজুড়ে লকডাউন ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গেই বন্ধ হয়ে যায় সব রকমের ট্রেন পরিষেবা। এবার লকডাউন উঠে গেলে কয়েকটি ধাপে রেল চলাচল স্বাভাবিক হবে বলে এক রেল আধিকারিককে উদ্ধৃত করে জানিয়েছিল সংবাদসংস্থা পিটিআই। ১৪ এপ্রিল লকডাউন উঠছে এমন সরকারি ঘোষণা হওয়ার পরে আগামী সপ্তাহেই এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে রেল। এখনও পর্যন্ত কেন্দ্রীয় সরকারের যা ইঙ্গিত তাতে লকডাউনের মেয়াদ বাড়বে না। ১৪ এপ্রিল শেষ হবে সময়সীমা। কিন্তু তারপরে দেশে পুরোপুরি লকডাউন উঠে যাওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। ইতিমধ্যেই স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছে, করোনাভাইরাস সংক্রমণ বেশি হওয়ার জন্য দেশে যে সব 'হটস্পট' চিহ্নিত হয়েছে সেই সব জায়গা আরও এক মাস সিল করে রাখা থাকবে। শুধু সেই সব জায়গাতেই নয়, লকডাউন উঠে যাওয়ার পরে খুব ভিড় হয় এমন জায়গায় রেল চলাচলে কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করা হতে পারে। ১৫ এপ্রিল থেকে ট্রেন চালানোর প্রস্তুতি শুরু করে দিলেও এই সব ব্যাপারে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়নি রেল। কেন্দ্রীয় সরকারের গ্রিন সিগন্যাল পাওয়ার পরেই পরিকল্পনা ঘোষণা করবে রেল।

জনপ্রিয়

Back To Top