আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বন্যায় বিধ্বস্ত ‌কেরলকে কোনও বাড়তি আর্থিক সাহায্য দিল না কেন্দ্র। গত বছর আগস্ট মাসে কেরলে  বিধ্বংসী বন্যায় প্রাণ হারান প্রায় ৪০০ জন মানুষ। এই বছরের বন্যাতেও প্রাণ হারান ১০৪ জন মানুষ। সম্প্রতি একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, গত বছরের বন্যায় কেরলে মোট ৩১ হাজার কোটি টাকার সম্পত্তি তছনছ হয়ে যায়। সেই পরিস্থিতি থেকে এখনও ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি বাম শাসিত কেরল রাজ্য। কেন্দ্রের থেকে এখনও পর্যন্ত ২৯০৪ কোটি টাকার আর্থিক সাহায্য পেয়েছে কেরল। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে উঠে এসেছে ৪০১৬ কোটি টাকা। আরও ৪৭০০ কোটি টাকার বাড়তি আর্থিক সাহায্য চাওয়া হয়েছিল কেন্দ্রের কাছে। 
চলতি বছরে চারটি রাজ্য বন্যায় ভয়ঙ্কর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেই রাজ্যগুলিকে বাড়তি আর্থিক সাহায্যে জন্য কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছিল। ঠিক হয়েছিল, ৪৪৩২ কোটি টাকার বাড়তি আর্থিক সাহায্য করবে কেন্দ্র। কিন্তু এই সাহায্য থেকে বঞ্চিত করা হয় কেরলকে, যেখানে কেরল গত বছর ও চলতি বছরের বন্যায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। প্রশাসন সূত্রে খবর, এই বাড়তি আর্থিক সাহায্য মূলভাগটাই পেয়েছে ওডিশা, কর্নাটক এবং হিমাচলপ্রদেশ। ৪৪৩২ কোটি টাকার মধ্যে ৩৩৩৮ কোটি টাকা দেওয়া হয় ফণী ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত ওডিশাকে। খরায় জর্জরিত কর্নাটককে দেওয়া হয়েছিল ১০২৯ কোটি টাকা। বাকি ৬৫ কোটি টাকার আর্থিক সাহায্য দেওয়া হয়েছিল হিমাচলপ্রদেশকে। 

জনপ্রিয়

Back To Top