আজকালের প্রতিবেদন‌ 
দিল্লি, ১১ জুলাই

দলের বৈঠকের মধ্যে হঠাৎ সোনিয়া গান্ধীর কাছে কংগ্রেস নেতারা দাবি জানালেন, দলের শীর্ষপদে আবার ফিরিয়ে আনা হোক রাহুল গান্ধীকে। কংগ্রেস সভানেত্রী চুপ করেই থাকেন। সোনিয়া চাননি রাহুল গান্ধী দলের দায়িত্ব ছেড়ে চলে যান। কিন্তু রাহুল লোকসভা ভোটের বিপর্যয়ের দায়িত্ব নিয়ে পদত্যাগের প্রশ্নে অনমনীয় ছিলেন।
‌শনিবার দলের লোকসভার সাংসদদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে বৈঠকে বসেছিলেন সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী। করোনা, লকডাউন, অর্থনীতি, সীমান্তে চীনের সঙ্গে সমস্যা এবং পেট্রোল–‌ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে কোণঠাসা করার রণকৌশল তৈরি নিয়ে আলোচনা চলছিল। 
লোকসভা নির্বাচনে ভরাডুবির পর পরাজয়ের দায় ঘাড়ে নিয়ে সভাপতির পদ থেকে ইস্তফা দেন রাহুল গান্ধী। তারপর থেকে দলের অন্তর্বর্তিকালীন সভানেত্রী পদে রয়েছেন সোনিয়া। ১০ আগস্ট তাঁর মেয়াদ শেষ হতে চলেছে। আর ঠিক এই সময়েই দলের অন্দরে আরও একবার রাহুল গান্ধীকে সভাপতি পদে বসানোর দাবি উঠেছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে লাগাতার তোপ দেগে চলেছেন রাহুল। বিজেপি–র বিরুদ্ধে লড়াইয়ে গতি আনতেই রাহুলকে শীর্ষপদে চাইছেন দলের কিছু নেতা। 
এই দাবি রাহুলের ওপর চাপ তৈরি করবে ঠিকই, কিন্তু তিনি এখনও সভাপতি পদে বসতে রাজি নন বলে দলীয় সূত্রের খবর। এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে দলের পরবর্তী ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে। সেক্ষেত্রে সভানেত্রী পদে সোনিয়া গান্ধীর মেয়াদ আরও বাড়ানো হতে পারে।
সোনিয়া এদিন তাঁর দলের সাংসদদের কাছে নিজের নিজের এলাকায় করোনা পরিস্থিতি কেমন সে–ব্যাপারে বিস্তারিত খোঁজ নিয়েছেন। সাধারণ মানুষের পাশে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top