আবু হায়াত বিশ্বাস,দিল্লি: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কপ্টারে তল্লাশির অপরাধে নির্বাচন কমিশন তাদের ওডিশার পর্যবেক্ষক মহম্মদ মহসিনকে সাসপেন্ড করেছে। কারণ তিনি কমিশনের এসপিজি নিরাপত্তা সংক্রান্ত নিয়ম‌বিধি ভেঙেছেন। কিন্তু কংগ্রেসের দাবি, সংশ্লিষ্ট নির্বাচনী নিয়মবিধিতে এসপিজি–নিরপত্তা যঁারা পেয়ে থাকেন, তঁাদের জন্য আলাদা করে কিছু লেখা নেই। কাজেই ঘটনাটি নিয়ে সরব হয়েছে বিরোধীরা। এর আগে দুই বিরোধী–শাসিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের হেলিকপ্টারেও তল্লাশি হয়। এঁরা হলেন ওডিশার নবীন পট্টনায়ক ও কর্ণাটকের এইচডি কুমারস্বামী। সেজন্য কারও বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। তাই বিরোধীরা কমিশনের এই সিদ্ধান্তকে ‘‌পক্ষপাতমূলক’‌ বলে অভিযোগ করছে। সংশ্লিষ্ট অফিসার অবশ্য মুখ খুলতে রাজি হননি।
কংগ্রেস মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালা টুইটে লিখেছেন, ‘‌মোদিজি কেন্দ্রীয় সংস্থাকে অপব্যবহার করছেন। তঁাদের অঙ্গুলিহেলনে আয়কর দপ্তর বিরোধী দলের নেতাদের বাড়িতে হানা দিচ্ছে। সেই মোদিজি মাত্র ১৫ মিনিটের তল্লাশিতে ভয় পেয়ে গেলেন!‌ নির্বাচনী আধিকারিককে সরাতে হল!’‌ কংগ্রেস মুখপাত্রের প্রশ্ন, ‘‌কর্ণাটকে কালো ট্রাঙ্ক প্রকাশ্যে আসার পর কপ্টার–‌তল্লাশিতে আপনার এত আপত্তি কেন মোদিজি?‌’‌‌ কালো ট্রাঙ্ক বলতে তিনি যা বুঝিয়েছেন তা হল, চিত্রদুর্গে মোদির হেলিকপ্টার থেকে নামিয়ে একটি কালো ট্রাঙ্ক গাড়িতে তোলার ছবি। অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আপ–‌ও মোদিকে কটাক্ষ–‌টুইট করেছে, ‘‌নিজের সুরক্ষিত ঘরে থাকতে চান দেশের চৌকিদার। চৌকিদার কী লুকোতে চাইছেন?’ নির্বাচন কমিশনের বক্তব্য, ‘‌এসপিজি নিরাপত্তা বলয়ে থাকা ভিভিআইপি–‌দের তল্লাশি–‌সংক্রান্ত ২০১৪ সালের কমিশনের নির্দেশ লঙ্ঘন করেছেন মহসিন।’‌ কংগ্রেসের তরফে দাবি করা হয়েছে, ‌প্রধানমন্ত্রীর কপ্টারে তল্লাশি চালানো যাবে না, এমন কোনও নিয়মই নেই। কংগ্রেসের প্রশ্ন, ‘‌মোদি কপ্টারে এমন কী নিয়ে যান, যা তিনি দেশকে দেখাতে চান না?‌’
মঙ্গলবার ওডিশার সম্বলপুরে ও ভুবনেশ্বরে বিজেপি–‌র নির্বাচনী সভায় যান প্রধানমন্ত্রী। হঠাৎ তঁার হেলিকপ্টারের কাছে এসে হাজির হন ১৯৯৬ ব্যাচের কর্ণাটকের আইএএস অফিসার মহম্মদ মহসিন। আগাম নির্দেশিকা ছাড়াই মোদির কপ্টারে তল্লাশি চালান কমিশনের ওই আধিকারিক। যার ফলে মোদির সভায় পৌঁছোতে মিনিট ২০ দেরি হয় বলে অভিযোগ। গত কয়েক দিনে ওডিশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়ক, কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী এইচডি কুমারস্বামী, পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান বা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পার কপ্টারে তল্লাশি চালিয়েছে কমিশনের ফ্লাইং স্কোয়াড। কুমারস্বামী তঁার কপ্টার–‌তল্লাশি নিয়ে অভিযোগ করেন, ‘‌প্রধানমন্ত্রীর কপ্টার থেকে কালো বাক্স নামছে। এসইউভি–তে চাপিয়ে তা উধাও করে দেওয়া হচ্ছে। তখন কমিশন কোথায় ছিল?’ ভোটের মুখে নেতা–‌‌মন্ত্রীদের বাড়ি–‌গাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে বিপুল পরিমাণ টাকা উদ্ধার করেছে কমিশনের ফ্লাইং স্কোয়াড ও আয়কর দপ্তর। তল্লাশির নামে বিরোধীদের হেনস্থার অভিযোগও রয়েছে। এজন্য মোদি সরকারকে নিশানা করেছে বিরোধী দলগুলি। 

জনপ্রিয়

Back To Top