আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ কথায় কথায় বিভিন্ন বিষয়ে পাকিস্তান কিংবা নিদেনপক্ষে পড়শি বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের তুলনা করেন দেশের নেতারা। কিন্তু এই দুই দেশের তুলনাতে শুধু নয়, গোটা বিশ্বে পাঁচ বছরের কম বয়সি শিশুদের অপুষ্টিতে মৃত্যুর সংখ্যা সবার উপরে রয়েছে ভারতের নাম। এদেশে প্রতি বছর অপুষ্টির কারণে অন্তত ৬৯ শতাংশ শিশু (‌যাদের বয়স পাঁচ বছরের নিচে)‌ তাদের মৃত্যু হয়। সম্প্রতি ইউনিসেফের রিপোর্টে সেটাই দাবি করা হয়েছে। দ‌্য স্টেট অফ দ‌্য ওয়ার্ল্ডস চিলড্রেন, ২০১৯ শীর্ষক রিপোর্টটি আরও জানাচ্ছে যে, দেশের মাত্র ২১ শতাংশ শিশুর খাদ‌্যতালিকায় বিবিধ এবং সুষম আহারের যথাযথ সমন্বয় মেলে। পুষ্টির অভাবে অধিকাংশ শিশুই নানা ধরনের জটিল রোগে ভোগে। আর সেই তালিকায় ‘‌বড়দের রোগ’‌ও রয়েছে। যেমন–হাইপারটেনশন, কিডনির জটিল রোগ, মধুমেহ প্রভৃতি। তবে সেই নিরিখে বিচার করলে ভারতীয় মহিলাদের স্বাস্থ্যের ছবিটা আরও খারাপ। কারণ, ইউনিসেফের রিপোর্ট বলছে, ভারতে প্রতি দু'জন মহিলার মধ্যে একজন রক্তাল্পতায় ভোগেন।
রিপোর্ট অনুযায়ী, পাঁচ বছরের কম বয়স যে শিশুদের, তাদের প্রতি পাঁচ জনের মধ্যে একজনের শরীরে ভিটামিন এ–র ঘাটতি দেখা যায়। প্রতি তিনজন শিশুর মধ্যে একজনের শরীরে ভিটামিন বি১২–এর অভাব দেখা যায়। আবার প্রতি পাঁচ জনের মধ্যে দু’‌জন রক্তাল্পতায় ভোগে। এছাড়া ‘‌মাইক্রো নিউট্রিয়েন্টস’‌–এর অভাবে রিকেট, রাতকানা হয়ে যাওয়ার মতো রোগও থাবা বসায় শিশুদের শরীরে।‌‌‌ এই তালিকায় ভারতের পরেই অবশ্য রয়েছে পাকিস্তানের নাম। সেদেশে মৃত্যু হয়েছে ৪ লক্ষ ৯ হাজার জন শিশুর। তারপরে রয়েছে যথাক্রমে কঙ্গো এবং ইথিওপিয়ার নাম।‌

জনপ্রিয়

Back To Top