আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ হাথরাস গণধর্ষণ কাণ্ডের প্রতিবাদে ফুঁসছে গোটা দেশ। বড়সড় প্রশ্নচিহ্নের মুখে যোগীরাজ্যের নারী নিরাপত্তা। এই পরিস্থিতিতে ধর্ষণ নিয়ে টুইট করে বিতর্কে জড়ালেন সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি মার্কন্ডেয় কাটজু। তাঁর টুইট নিয়েই বিভিন্ন মহলে উঠেছে সমালোচনার ঝড়।
বুধবার মার্কন্ডেয় কাটজু টুইটে দাবি করেন, দেশজুড়ে বেকারত্বের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে ধর্ষণ। নিজের মতো করে তার ব্যাখ্যাও দিয়েছেন প্রাক্তন বিচারপতি। তিনি দাবি করেন, পুরুষদের স্বাভাবিক প্রবৃত্তি যৌনতা। ভারতের মতো একটি রক্ষণশীল দেশে পুরুষরা বিয়ের মাধ্যমে সেই তাগিদ মিটিয়ে নেন। তবে বর্তমানে বেকারত্ব বাড়ার ফলে অনেকেই সময়মতো বিয়ে করতে পারছেন না। আর তার ফলে বহু যুবকরা যৌনতার সুখ পাচ্ছেন না। তাই বাড়ছে ধর্ষণ।’ তবে কোনওভাবেই যে তিনি ধর্ষণকে সমর্থন করেন না, তা তাঁর পোস্টে উল্লেখ করে দেন। দাবি, তিনি ধর্ষণের রীতিমতো নিন্দা করছেন। কিন্তু দেশের প্রেক্ষাপট বিবেচনা করে এই ধরনের পোস্ট করতে নাকি বাধ্য হচ্ছেন। প্রাক্তন বিচারপতির আরও দাবি, ধর্ষণ কমাতে চাইলে প্রথমে প্রচুর কর্মসংস্থান করতে হবে। যাতে বেকারত্ব প্রায় শূন্যে গিয়ে ঠেকে কিংবা তা থাকলেও অত্যন্ত কম।
বিচারকার্য ছাড়ার পর থেকেই মার্কন্ডেয় কাটজু বেশ সক্রিয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। এবার সর্বোচ্চ আদালতের প্রাক্তন বিচারপতির টুইট নিয়েই তোলপাড়। হাথরাস কাণ্ডের পরিপ্রেক্ষিতে তাঁর এই ব্যাখ্যাকে ভাল চোখে দেখছেন না অনেকেই। কারও কারও দাবি আদতে তিনি ধর্ষণকে সমর্থন করেন বলেই এ ধরনের টুইট করেছেন। 

জনপ্রিয়

Back To Top